চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কঠিন পথে হাঁটতে যাচ্ছে পিএসজি

বিত্তশালী পিএসজির আর্থিক অবস্থার ব্যখ্যা চেয়েছে ইউরোপীয়ান ফুটবল নিয়ন্ত্রণ সংস্থা উয়েফা। নিয়ন্ত্রণ সংস্থার ব্যখ্যা চাওয়ার পর নড়েচড়ে বসেছে ক্লাবটি। এমন পরিস্থিতিতে কঠিন পথে হাঁটতে বাধ্য হচ্ছে লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নরা। আসছে মৌসুমে বড় বেতনের খেলোয়াড় বিক্রি করে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চাইছে প্যারিসের ক্লাবটি।

উয়েফার পদক্ষেপের পর ক্লাবটি নতুন কাঠামোর মাঝ দিয়ে যাওয়ায় শঙ্কায় পড়েছেন অনেক খেলোয়াড়। পিএসজিতে বড় বেতনে আছেন এমন তালিকায় উপরের দিকে আছেন নেইমার ও লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে ছেড়ে দেওয়ার কথা না উঠলেও গুঞ্জন উঠেছে ব্রাজিলিয়ান তারকা ফরোয়ার্ডকে ছেড়ে দিবে ক্লাবটি।

Reneta June

লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তি আছে নেইমারের। স্পোর্টসভিত্তিক পত্রিকা লে’কিপে জানিয়েছে, মৌসুম প্রতি প্রায় ৫০ মিলিয়ন ইউরো আয় করেন ৩০ বর্ষী তারকা। এত মূল্য পরিশোধ করে তাকে ইউরোপের খুব কম ক্লাব টানতে চাইবে। অবশ্য নেইমার জানিয়েছেন, ফ্রান্সের রাজধানী ছাড়ছেন না তিনি।

বিজ্ঞাপন

কাইলিয়ান এমবাপের চুক্তি বাড়িয়ে নেওয়ার পর প্রশ্নের মুখে পড়ে পিএসজি। ব্যালেন্স শিটে তাদের ঘাটতি রয়েছে ২২৪ মিলিয়ন ইউরো। বেতন-ভাতা মিলিয়ে ক্লাবটি বছরে প্রায় ৬০০ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধ করে বলে অভিযোগ এনেছেন লা লিগা প্রেসিডেন্ট জাভিয়ের তেবাস। যার মাঝে নেই এমবাপের তিন বছরের বর্ধিত চুক্তির অর্থ।

নিজের আর্থিক ভারসাম্য বজায় রাখতে স্কোয়াড ছাটাইয়ে নেমেছে ক্লাবটি। সেখানে নেইমার এমন একজন খেলোয়াড় যাকে বিক্রি করতে পারলে ক্লাবটির আর্থিক উন্নতি অনেকখানি এগিয়ে যাবে। বড় বেতন নেওয়া এমন অনেকে রয়েছে ক্লাব ছাড়ার তালিকায়। বেশকিছু খেলোয়াড় আছে যাদের চুক্তি শেষ হবার পথে, তারা চুক্তি বৃদ্ধির না হওয়ার শঙ্কায় পড়েছে।