চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

টেনিসকে বিদায় জানালেন ফেদেরার

Nagod
Bkash July

বয়স, চোট এবং জয়খরা—এই তিনে ভুগে টেনিসকে বিদায় বলে দিচ্ছেন রজার ফেদেরার। আগামী সপ্তাহে লন্ডনে লেভার কাপে খেলার পর প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে দেখা যাবে না তর্কসাপেক্ষে সর্বকালের সর্বশেষ্ঠ এই টেনিস খেলোয়াড়কে।

বৃহস্পতিবার ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে অবসরে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন ২০ বারের গ্রান্ড স্লাম জয়ী সুইস সেনশেসন। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে টেনিসের সেরার কাতারে নিজের নাম ধরে রেখেছেন ৪১ বর্ষী এই তারকা। শেষ কয়েকবছর ভুগেছেন হাঁটুর চোটে। গতবছর উইম্বলডনে সবশেষ ম্যাচ খেলেছিলেন ফেদেরার।

সুইস তারকা ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘অনেকেই জানেন, গত তিন বছর চোট এবং অস্ত্রোপচারের মতো চ্যালেঞ্জের মুখে ছিলাম। প্রতিযোগিতামূলক ফর্মে ফিরে আসতে কঠোর পরিশ্রম করেছি। কিন্তু আমার শরীরের সক্ষমতা এবং সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে জানি। ইদানিং শরীর আমাকে জানান দিচ্ছিল, আমার বয়স এখন ৪১ বছর।’

গেল কয়েকবছরে অনেকবার হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করিয়েছেন ফেদেরার। এ সময়ে খুব বেশি টুর্নামেন্টও খেলতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফ্রেঞ্চ ওপেন হয়ে অংশ নিতে পারেননি উইম্বলডনেও। এবার চোটের সঙ্গে যুদ্ধে হার মানলেন টেনিস সম্রাট। ২৪ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দিচ্ছেন।

মাথায় সাদা ফেট্টি বেঁধে কোর্টে দাপট দেখানো ফেদেরার লিখেছেন, ‘২৪ বছরে পনেরশ’র বেশি ম্যাচ খেলেছি। আমি স্বপ্নেও যেমন ভাবিনি তারচেয়েও দারুণ কিছু দিয়েছে টেনিস। প্রতিযোগিতামূলক ক্যারিয়ার শেষ করার সময়ে এটাকে অবশ্যই আমার চিনতে হবে। লন্ডনে পরের সপ্তাহে লেভার কাপ হবে আমার শেষ এটিপি আসর। অবশ্যই ভবিষ্যতে টেনিস খেলব, তবে গ্র্যান্ড স্ল্যামে বা সফরে নয়।’

২০০৩ সালে প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছিলেন ফেদেরার। এরপর থেকে ৬টি অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, একটি ফ্রেঞ্চ ওপেন, ৮টি উইম্বলডন ও ৫টি ইউএস ওপেন জিতেছিলেন এই টেনিস কিংবদন্তি। সম্প্রতি তিনি বলেছিলেন, ‘যদি জেতার খিদে না থাকে, তাহলে শুধু শুধু খেলা চালিয়ে যাওয়ার কোনও মানে হয় না।’ এবছরের লেভার কাপের পর টেনিস ছেড়ে দিয়ে সেটাই করতে যাচ্ছেন টেনিসের এই সম্রাট।

BSH
Bellow Post-Green View
Bkash Cash Back