চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

টানা একমাস হাউজফুল, ‘পরাণ’ এর নারী দর্শক বেশি

Nagod
Bkash July

ঈদে মুক্তির পর অনন্য রেকর্ড গড়তে যাচ্ছে রায়হান রাফী পরিচালিত ‘পরাণ’। ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে রবিবার পর্যন্ত টানা ২৯ দিন হাউজফুল দিচ্ছে।

সিনেপ্লেক্সে খোঁজ নিয়ে জানা গেল, ইতোমধ্যে আগামী দুদিনের অগ্রিম টিকেটও শেষ। সেই হিসেবে টানা একমাস হাউজফুল লাইভ টেকনোলজিস প্রযোজিত বিদ্যা সিনহা মিম, শরিফুল রাজ, ইয়াশ রোহান, নাসির উদ্দিন, রাশেদ অপু অভিনীত ‘পরাণ’ ছবিটি!

Sarkas

স্টার সিনেপ্লেক্সের সবগুলো শাখায় একই অবস্থা। মুক্তির ২৯তম দিনেও রবিবার রাতে বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, লম্বা লাইন ধরে দর্শক হলে ঢুকছেন। সেখানে নারী দর্শক ছিল বেশি। রাজধানীর এলিফেন্ট রোড থেকে এক পরিবারের ৬জন মিলে ‘পরাণ’ দেখতে এসেছিলেন।

তাদেরই একজন শাহানারা। তিনি বলেন, এখন পরিবারের সবাইকে নিয়ে দেখার মত ছবি হচ্ছে। সংবাদ মাধ্যমের কল্যাণে জেনেছি ‘পরাণ’ খুব ভালো ছবি। এজন্য আমরা ৪ বছর পর পরিবারের ৬জন দেখতে এসেছি। এমন সুস্থ ধারার সামাজিক ছবি তৈরি হলে পারিবারিক দর্শক আবার সিনেমা হলে ফিরবে।

পুত্র ও কন্যা নিয়ে কাকরাইল থেকে ‘পরাণ’ দেখতে আসেন শিক্ষিকা মনিরা বেগম। তিনি জানান, দুদিন আগে টিকেট কেটেছিলেন। আগেও দেখার ইচ্ছা ছিল কিন্তু সময় বের করতে পারেননি। বলেন, মাঝেমধ্যে হলিউডের ছবি দেখতে আসা হয়। কিন্তু এবার বাংলা ছবি ‘পরাণ’ দেখলাম। চমৎকার ছবি। নির্মাণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

এদিকে সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ বলছে, হলিউডের ‘থর’ ও বুলেট ‘ট্রেন’ এর চেয়ে ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’ বেশি দর্শক দেখছেন। ২৯ দিনের মাথায় হাউজফুল দিচ্ছে ‘পরাণ’। সবচেয়ে বেশি দেখছে নারী ও পারিবারিক দর্শক। মুক্তি পাওয়া ‘হাওয়া’ নিয়েও দর্শকের আগ্রহ ভালো। তবে ‘পরাণ’ যে এতটা সাফল্য পাবে সেটা ধারণার বাইরে ছিল বলে জানায় স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ।

প্রধান বিপণন কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ‘পরাণ’ যেভাবে মানুষ দেখছে এটা বাংলা ছবির জন্য নতুন এক মাইলস্টোন। এখনো মানুষ টিকেট না পেয়ে ফিরে যাচ্ছে। আমরা অভিভূত। নিকট অতীতে বাংলা সিনেমার ক্ষেত্রে এমনটা দেখা যায়নি।

নির্মাতা রায়হান রাফী ও প্রযোজক ইয়াসির আরাফাত

‘পরাণ’-এর সাফল্যে রীতিমত তারকা নির্মাণ বনে গেছেন রায়হান রাফী। বাণিজ্যিক ছবির সবচেয়ে আলোচিত এ নির্মাতা বলেন, ২৯ দিন পর হাউজফুল যাওয়া সত্যি এমন আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। সবচেয়ে ভালো লাগছে নারী দর্শকরা সময় নিয়ে হলেও সিনেমাটি দেখতে আসছেন। যে ছবি দেখতে পরিবার নিয়ে মানুষ হলে আসে সেই ছবির সাফল্য আসলে থেমে থাকে না। ‘পরাণ’ সবার পরাণ জয় করেছে। এই অভিজ্ঞতা আজীবন মনে থাকবে।

‘পরাণ’ ছবির প্রযোজক ও লাইভ টেকনোলজিসের পরিচালক ইয়াসির আরাফাত বলেন, মুক্তির একমাস হতে যাচ্ছে কিন্তু দর্শকের উন্মাদনায় মনে হচ্ছে সদ্য মুক্তি পাওয়া ছবি ‘পরাণ’। সবখান থেকে খুব ভালো সাড়া পাচ্ছি। বাংলা ছবির সুদিন ফিরিয়ে আনতে আমাদের ‘পরাণ’ একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

শুধু দেশে নয়, বিদেশেও ‘পরাণ’ চলবে বলে জানান তিনি। বলেন, ১২ আগস্ট থেকে অস্ট্রেলিয়াতে চলবে। ধারাবাহিকভাবে ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যেও মুক্তির প্রক্রিয়া চলছে।

BSH
Bellow Post-Green View