চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিশুদের টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু জুলাইয়ের শেষে

আগামী জুলাই মাসের শেষের দিকে ৫-১২ বছরের শিশুদের টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

আজ বুধবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের আওতাধীন দপ্তর/সংস্থার সঙ্গে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

Reneta June

জাহিদ মালেক বলেন, শিশুদের ভ্যাকসিন কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। শিশুদের জন্য করোনার টিকা জুলাই মাসের মাঝামাঝি পেয়ে যাব। টিকা হাতে এলে ৫-১২ বছরের শিশুদের জন্য জুলাইয়ের শেষে টিকা কার্যক্রম শুরু করতে পারব।

বিজ্ঞাপন

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা সংক্রমন বৃদ্ধির হার গত ১৫ দিন অনেক কম ছিল। এখন অনেক বেশি। এটার লাগাম টেনে ধরতে চাই। আমাদের একার পক্ষে তা সম্ভব নয়। জনগণের সচেতনতা দরকার। মাস্ক পরিধান করা জরুরি। তাহলে অনেকটা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, দেশে করোনা এখন একটু ঊর্ধ্বমুখী, ফলে আমরা কিছুটা চিন্তিত তবে শঙ্কিত নই, আমরা প্রস্তুত রয়েছি। আমাদের হাসপাতালগুলোর উন্নয়ন চলমান রয়েছে। হাসপাতালগুলোতে এখন তেমন করোনা রোগী নেই। হাসপাতালগুলোতে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার পরিপূর্ণ ব্যবস্থা রয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব সাইফুল ইসলাম বাদল, অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার খুরশিদ আলম প্রমুখ।