চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বন্যা উপদ্রুত ৫২ হাজার পরিবারকে ব্র্যাকের জরুরি সহায়তা

দেশের বন্যা পরিস্থিতি অবনতির শুরু থেকেই স্থানীয় সরকারের সাথে কাজ শুরু করেছে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক। বন্যায় জরুরী সহায়তা প্রদানে নিজস্ব তহবিল থেকে তিন কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সংগঠনটি।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে শুকনো খাবার, খাবার পানি, খাবার স্যালাইন, দিয়াশালাই, মোমবাতি, প্রয়োজনীয় ঔষধ ও অন্যান্য সেবা পৌঁছে দেয়ার পাশাপাশি বন্যায় আটকে পড়া মানুষকে উদ্ধার করতেও এই অর্থ ব্যয় করা হবে। প্রাথমিক অবস্থায় প্রায় ৫২ হাজার পরিবারকে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

Reneta June

সরকারের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ২৪ ঘন্টায় উত্তর-পূর্বাঞ্চল সিলেট, সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোণার বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে। এরই মধ্যে সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার প্রায় ৮০ শতাংশ এলাকা ডুবে গেছে।

বিজ্ঞাপন

সরকারি এই সূত্রে প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে জানা গেছে, বন্যায় মারাত্মকভাবে প্লাবিত হয়েছে সিলেট জেলার ৭ টি ও সুনামগঞ্জের ০৫ টি উপজেলা প্লাবিত।

জরুরী সহায়তা সেবার আওতায় যেসব পরিবারের প্রধান ব্যক্তি নারী এবং যেসব পরিবারে প্রবীণ, অন্তঃসত্ত্বা ও প্রতিবন্ধী আছেন, সেসব পরিবারকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছ। বন্যা কবলিত অঞ্চলগুলোতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ব্র্যাক তার ক্ষুদ্রঋণ কর্মসূচীর ঋণের কিস্তি সংগ্রহের কার্যক্রম সাময়িকভাবে স্থগিত রাখারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়াও স্থানীয় সরকারের সকল নির্দেশনায় সহযোগি হিসেবে কাজ করছে ব্র্যাকের দূযোর্গ ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত কর্মীরা।

অনাকাঙ্খিত এই প্রাকৃতিক দূর্যোগের স্থানীয় পর্যায়ে প্রয়োজন পর্যালোচনা করে দেখা গেছে প্রায় ২৫ কোটি টাকার জরুরি সহায়তা প্রয়োজন। প্রয়োজনীয় এই অর্থ সংগ্রহে ব্র্যাক মানবিক সহায়তামূলক আহবান ‘ডাকছে আমার দেশ’ উদ্যোগটি পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই উদ্যোগে সমাজের অবস্থাপন্ন সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন সংগঠনটির নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ্।