চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Cable

শুটিংয়ের কারণে ভোগান্তি, আন্দোলনে নামছে এলাকাবাসী

Nagod
Bkash July

আগামী বছরের এপ্রিলে আসছে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ১০’। পুরো বিশ্বের ভক্তরা যখন ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ১০’ নিয়ে উত্তেজনায় আছে, তখন এই ছবি নিয়ে মহা বিরক্ত কিছু মানুষ!

Reneta June

তারা হলেন ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ১০’-এর শুটিং এলাকার আশেপাশের বাসিন্দারা। ছবির বিরূপ প্রভাব পড়েছে পুরো এলাকায়।

২০০১ সাল থেকে লস অ্যাঞ্জেলসের অ্যাঞ্জেলিনো হাইটস-এ করা হয়েছে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’-এর শুটিং। ছবির সুবাদে অ্যাঞ্জেলিনো হাইটস, বব’স মার্কেট খুবই চেনা সিনেমাপ্রেমীদের। ছবিতে বব’স মার্কেটের মালিক হিসেবে দেখানো হয় ডমিনিক টরেটো (ভিন ডিজেল)-এর পরিবারকে। এই এলাকার রাস্তাও চেনা দর্শকের। আর তাই এই এলাকায় অনেকেই ভিড় জমান সেলফি তোলার জন্য।

বব’স মার্কেট, ও ডমিনিক হাউজ এখন দর্শনার্থীদের প্রিয় জায়গায় পরিণত হয়েছে। সারাদিনই মানুষের ভিড় জমে থাকে ছবি তোলার। তবে এখানেই ভোগান্তির শেষ নয়, প্রায় প্রতি রাতে অনেকেই সিনেমার মতো উচ্চ গতিতে গাড়ি চালান এখানে। ঝুঁকিপূর্ণ স্টান্টও করেন কেউ কেউ। কার রেসিং এখানে নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এই এলাকার বাসিন্দাদের জন্য গাড়ির শব্দ এবং গতি দুটোই বিরক্তি ও ভয়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই তারা শুক্রবার ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ১০’-এর শুটিং বন্ধ করার জন্য আন্দোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।এলাকাবাসীর মতে, গাড়ির অতিরিক্ত গতির কারণে যে কোনো সময় পথচারীদের মৃত্যু হতে পারে।

স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ‘আমার মায়ের বয়স ৯০। তিনি রাতে গাড়ির শব্দে ভয় পান। আমাদের এলাকায় শিশুরাও বাস করে। এসব বন্ধ হওয়া উচিত।’

আরেক বাসিন্দা বলেছেন, ‘হয়তো ইউনিভার্সাল জানেও না যে তাদের ছবিটি একটি এলাকার ওপর কেমন প্রভাব ফেলছে। ইউনিভার্সালেরই এই দায় নেয়া উচিত। কারণ এসব ছবি থেকে মিলিয়ন ডলার কামাই করছে তারা।’

সূত্র: ভ্যারাইটি

BSH
Bellow Post-Green View