চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রথমবার সিনেমায় গাইলেন সেরাকণ্ঠের সুমনা

নূর ই আলমের পরিচালনায় ‘রাসেলের জন্য অপেক্ষা’ সিনেমার জন্য গাইলেন ‘চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ-২০১৭’ বিজয়ী সুমনা

প্রথমবার সিনেমার গানে কণ্ঠ দিলেন ‘চ্যানেল আই সেরাকন্ঠ ২০১৭’ বিজয়ী সুমনা। সরকারি অনুদানে নির্মিতব্য নূর ই আলমের পরিচালনায় সেই সিনেমাটির নাম ‘রাসেলের জন্য অপেক্ষা’।

প্রথমবার সিনেমার গানে কণ্ঠ দেয়ার সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত সুমনা। জানালেন, এই মুহূর্তে ভীষণ উত্তেজীত তিনি। বললেন, সিনেমার গানে কণ্ঠ দেয়া যে কোনো শিল্পীর জন্য স্বপ্নের মতো। আমি খুব কম সময়ে সেই স্বপ্নের দেখা পেয়েছি।

এজন্য কৃতজ্ঞতা জানাতেও ভুলেননি সুমনা। ঋণ স্বীকার করলেন গুণী শিল্পী কুমার বিশ্বজিতের প্রতি। কারণ তিনিই প্রথম তাকে মৌলিক গান গাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছেন।

সুমনা বলেন, প্রতিটি কণ্ঠযোদ্ধারই স্বপ্নের জায়গা প্লেব্যাক। আর আমার সে শুরুটাই এতটা অসাধারণ ভাবে হয়েছে। সুযোগটা তৈরী করে দিয়েছেন শ্রদ্ধেয় কুমার বিশ্বজিৎ স্যার। আমি কিছুদিন আগে স্যারের সুরে,লিটন অধিকারী রিন্টু স্যারের লেখায়কিশোর দাসের কম্পোজিশনে একটি মৌলিক গান করি। গানটির কাজ এখনো চলছে। এ গানটিই আমার টার্নিং পয়েন্ট বলে মনে করি। এর থেকেই শুভর শুরু। কুমার বিশ্বজিৎ স্যার আমার প্রতি আস্থা রেখে আমাকে একটা মাধ্যম তৈরী করে দিয়েছেন, আর এরপর ইমন সাহা ভাইয়া আমাকে প্লেব্যাকের মতন এত বড় একটা সুযোগ দেন।

বিজ্ঞাপন

‘রাসেলের জন্য অপেক্ষা’ সিনেমায় গানটির রেকর্ডিং সম্পন্ন হয়েছে সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর)। সুমনা জানান, ‘গানটি আমার জন্য নতুন একটি অভিজ্ঞতা। কারণ শিশুকণ্ঠে গানটি গাইতে হয়েছে।’

সোমবার গানটির রেকর্ডিং সম্পন্ন হয়েছে

সুমনার একক কণ্ঠে গাওয়া গানটির কথা লিখেছেন আহমেদ ইউসুফ সাবের। সুর ও সংগীতায়োজনে ছিলেন ইমন সাহা।

এদিকে সুমনাকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত ইমন সাহা তার ফেসবুকে বলেন, ‘আমেরিকা সময় রাত ২টা নাগাদ কুমার বিশ্বজিৎ কাকু টেক্সট করলেন, ‘কাকু জেগে আছিস?’ সাথে সাথেই কল করলাম। বললেন – ‘তোকে একটা ভয়েস পাঠাচ্ছি, শুনে দেখতো কেমন লাগে।’ শুনলাম। চমৎকার, ফ্রেশ একটা টোন। বললেন, ‘মেয়েটার নাম সুমনা, ২০১৭ চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ বিজয়ী। আমি ওর জন্য এ গানটা করেছি, তুই পারলে ওর জন্য কিছু কাজ করিস।’ এরপর সুমনার যত গান ইউটিউবে পাওয়া যায়, তার প্রায় সবগুলোই কয়েকবার করে শুনেছি। মনে হল, চেষ্টা নিষ্ঠা থাকলে ও সংগীতাঙ্গনে আরো সামনের দিকে এগোতে পারবে।

বিজ্ঞাপন