চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মেসির জোড়া গোল, এমবাপের এক, স্বস্তি পিএসজির

আরবি লেইপজিগ প্যারিসে খেলতে এসে ভালোই আক্রমণ জমাল। দুটি গোলও আদায় করে নিয়েছে। লিওনেল মেসির জোড়া গোল আর কাইলিয়ান এমবাপের একটির সামনে অবশ্য পয়েন্ট তোলা হয়নি তাদের। স্বস্তির জয়ে মাঠ ছেড়েছে পিএসজি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপপর্বে মঙ্গলবার রাতে লেইপজিগের বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানে জিতেছে পিএসজি। গ্রুপ এ-তে শীর্ষে উঠে গেছে লা প্যারিসিয়ানরা। ৩ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট তাদের।

সমান ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ টেবিলের দুইয়ে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি, তিনে ৪ পয়েন্টের ক্লাব ব্রুগে ও তলানির লেইপজিগের খাতা শূন্য।

ম্যাচের নবম মিনিটেই স্বাগতিকদের লিড এনে দেন এমবাপে। অতিথিরা তখন মূহমূহ আক্রমণ শানিয়ে গোল আদায় করতে পারছিল না। পিছিয়ে পড়ে ২৮ মিনিটে সমতা টানে লেইপজিগ। অ্যাঞ্জেলিনোর বাড়ানো বলে গোল করেন সিলভা।

বিজ্ঞাপন

সমতায় থেকে মধ্যবিরতির পর ফিরে এগিয়ে যায় লেইপজিগ। ম্যাচের ৫৭ মিনিটে বলের যোগানদাতা ছিলেন সেই অ্যাঞ্জেলিনো। এবার গোল আদায় করে নেন মুকিয়েলে।

পিএসজির তখন অস্বস্তি। যা কাটিয়ে দিতে সাত মিনিটের ব্যবধানে জোড়া গোলে নায়ক বনে যান মেসি। প্রথমে ৬৭ মিনিটে আলতো টোকায় সমতায় ফেরান দলকে, পরে ৭৪ মিনিটে সফল স্পটকিকে এনে দেন লিড।

পিএসজি আরও একটি গোল পেতে পারত। কিন্তু যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে হ্যাটট্রিকের সুযোগ পেয়েও নিজে পেনাল্টি নেননি মেসি। সুযোগ দেন এমবাপেকে। স্পটকিকে এসে জাল খুঁজে নিতে পারেননি এমবাপে, উড়িয়ে মারেন। তাতে যদিও কোচ মাউরিসিও পচেত্তিনোর মুখের হাসি ম্লান হয়নি।

একই গ্রুপের আরেক ম্যাচে ক্লাব ব্রুগের মাঠ থেকে ১-৫ ব্যবধানে জিতে এসেছে ম্যানসিটি। ৩০ মিনিটে ক্যানসেলো, ৪৩ মিনিটে স্পটকিকে মাহারেজ, ৫৩ মিনিটে ওয়ালকার, ৬৭ মিনিটে পালমার ও ৮৪ মিনিটে ফের জাল খুঁজে নেন মাহারেজ। স্বাগতিকদের সান্ত্বনার গোলটি ৮১ মিনিটে আসেভানাকেনের মাধ্যমে।

বিজ্ঞাপন