চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৭ সেপ্টেম্বরের আগে সিলেট-৩ আসনে উপনির্বাচন করতে পারবে ইসি

আগামি ৭ সেপ্টেম্বরের আগে সুবিধাজনক সময়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন করতে পারবে বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজকের দিন পর্যন্ত এই আসানের নির্বাচন স্থগিত থাকার পর বিষয়টি শুনানির জন্য এলে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শিশির মনির। আর রাষ্ট্র পক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন এবং ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্র নাথ বিশ্বাস ও বিপুল বাগমার।

বিজ্ঞাপন

এর আগে নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ২৮ জুলাইয়ের ভোটগ্রহণ স্থগিত চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের ৬ আইনজীবী এবং ওই আসনের ৭ জন ভোটারের করা রিটের শুনানি নিয়ে গত ২৬ জুলাই হাইকোর্ট আগস্ট পর্যন্ত সিলেট-৩ আসনে উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ স্থগিত করেন। দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে সরকার ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধ চলায় এই স্থগিতাদেশ দেয়া হয়। হাইকোর্টের সে আদেশের পর সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করে ইসি।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে সিলেট-৩ আসনের আওয়ামী লীগের সাংসদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী গত ১১ মার্চ মারা যান। এরপর আসনটি শূন্য ঘোষণা করে ২৮ জুলাই নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করে ইসি। তবে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির বিবেচনায় ২৮ জুলাই সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ স্থগিত চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের ৫ আইনজীবীর পক্ষে অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শিশির মনির প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর ই-মেইলে একটি লিগ্যাল নোটিশটি পাঠান। ওই নোটিশের জবাব না পেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো: মুজাহিদুল ইসলাম, আল-রেজা মো: আমির, মো: জোবায়দুর রহমান, মো: জহিরুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, মেজবাহ উল ইসলাম এবং সিলেট-৩ আসনের ৭ জন ভোটার ২৮ জুলাই নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন। সে রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট ৫ আগস্ট পর্যন্ত উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ স্থগিত করেন।

বিজ্ঞাপন