চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

৭৭ বছরে পা রাখলেন আবুল হায়াত

বাংলাদেশের অভিনয় জগতে অনন্য একটি নাম আবুল হায়াত। ষাটের দশক থেকে নিয়মিত অভিনয় করে যাচ্ছেন তিনি। সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) এই অভিনেতা পা রাখলেন ৭৭ বছরে!

১৯৪৪ সালের ৭ সেপ্টেম্বর মুর্শিদাবাদে জন্ম গ্রহণ করেন আবুল হায়াত। অভিনয়ের সকল মাধ্যমে তার বিচরণ। থিয়েটার, টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রে সমানভাবে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি নাট্যকার ও নাট্যনির্দেশক হিসেবেও খ্যাতি আছে তাঁর।

বিজ্ঞাপন

৭৬ বছর পূর্তির দিনে মেয়ে নাতাশা হায়াত ও নাতনিকে নিয়ে এসেছিলেন চ্যানেল আইয়ে। অংশ নিয়েছেন চ্যানেল আইয়ের নিয়মিত অনুষ্ঠান ‘তারকা কথন’ এ। অনুষ্ঠানে জীবনের নানা দিক নিয়ে কথা বলেন তিনি।

একই দিনে কৃষি উন্নয়ন ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজের জন্মদিন হওয়ায় তাকে নিয়েও অনুষ্ঠানে কথা বলেন আবুল হায়াত। বলেন, এই দিনে সিরাজ ভাই আর আমার মধ্যে কে কার আগে কাকে শুভেচ্ছা জানাবো সেটা নিয়ে প্রতিযোগিতা শুরু হয়।

নাতাশা শোনালেন শাইখ সিরাজ ও তাদের পরিবারের মধ্যে নিগূড় সম্পর্কের কথা।

কিংবদন্তী নির্মাতা সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘অরুণোদয়ের অগ্নিস্বাক্ষী’-তে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে প্রথমবার চলচ্চিত্রে নাম লেখান আবুল হায়াত। এরপর বেশকিছু প্রশংসিত চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এরমধ্যে কেয়ামত থেকে কেয়ামত, আগুনের পরশমণি, জয়যাত্রা এবং অজ্ঞাতনামা উল্লেখযোগ্য।

২০০৮ সালে তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ‘দারুচিনি দ্বীপ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন। ২০১৫ সালে তিনি দেশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ‘একুশে পদক’-এ ভূষিত হন।