চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

১০ হাজার ২২০ কোটি কালো টাকা সাদা হলো

চলতি অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ নিয়েছেন ৭ হাজার ৬৫০ করদাতা। এই সুযোগ নিয়ে তারা প্রায় ১০ হাজার ২২০ কোটি কালো টাকা সাদা করেছেন। আর এতে সরকার কর পেয়েছে ৯৬২ কোটি টাকা।

সোমবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এতে বলা হয়েছে, অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার, বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও পুঁজিবাজারের উন্নয়নে চলতি অর্থবছর সরকার অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগে বিশেষ সুযোগ দেয়া হয়েছে। এ সুযোগে অভূতপূর্ব সাড়া দিয়েছেন করদাতারা। গত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আয়কর অধ্যাদেশ ১৯এর এএএএ ধারা অনুযায়ী ২০৫ জন করদাতা প্রায় ২২ কোটি ৮৪ লাখ টাকা কর পরিশোধ করে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করেছেন।

তাছাড়া ১৯এর এএএএএ ধারা অনুযায়ী ৭ হাজার ৪৪৫ জন করদাতা প্রায় ৯৩৯ কোটি ৭৬ লাখ টাকা আয়কর পরিশোধ করে অপ্রদর্শিত আয় প্রদর্শন করেছেন। এর ফলে দেশের অর্থনীতিতে প্রায় ১০ হাজার ২২০ কোটি টাকা প্রবেশ করেছে।

বিজ্ঞাপন

এই অর্থ বিনিযয়োগ বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও কর জিডিপির হার বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে বলে জানিয়েছে এনবিআর।

এছাড়া এনবিআর বলছে, চলতি অর্থ বছরে রিটার্ন দাখিল করেছেন ২১ লাখ ৫১ হাজার ৩২৬ করদাতা। সময় বাড়ানোর আবেদন করেছেন ২ লাখ ৫৮ হাজার করদাতা।

২০২০-২১ করবর্ষের প্রথম ৬ মাসে আয়কর সংগৃহিত হয়েছে প্রায় ৩৪ হাজার ২৩৮ কোটি টাকা, যা গত (২০১৯-২০) অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ১ হাজার ৫৪৫ কোটি টাকা বেশি।

২০২০-২০২১ অর্থবছরের আয়করে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৪৭৫ কোটি টাকা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৯ এএএএ ও ১৯ এএএএএ এর মাধ্যমে কর পরিশোধের সুযোগ চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।