চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হামজার ‘রশিদ খান’ হয়ে ওঠার দিনে নায়ক উইলিয়ামস

১০ উইকেটে জিতেছে জিম্বাবুয়ে

দলের নিয়মিত ও সেরা বোলার রশিদ খান খেলতে পারেননি। তারকার অনুপস্থিতিতে আলো কাড়লেন আমির হামজা। তার ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ের দিনে দারুণ এক সেঞ্চুরি করে নায়ক শন উইলিয়ামসও। একইদিনে ১০ উইকেটে জয় তুলেছে জিম্বাবুয়েও।

আবু ধাবিতে সিরিজের প্রথম টেস্টে নেমেছিল আফগানিস্তান ও জিম্বাবুয়ে। মঙ্গলবার প্রথমদিনে প্রথম ইনিংসে আফগানদের মাত্র ১৩১ রানে গুটিয়ে দেয় জিম্বাবুইয়ানরা।

বিজ্ঞাপন

পরে ব্যাটিংয়ে নেমে হামজার ঘূর্ণির সামনে পড়ে জিম্বাবুয়ে। অলআউট হওয়ার আগে অবশ্য ২৫০ রান তুলে ফেলে দলটি। ১১৯ রানের বড় লিডই নেয়।

জিম্বাবুয়ের ত্রাতা অধিনায়ক উইলিয়ামস। ক্যাপ্টেন্স নকে দারুণ এক সেঞ্চুরি উপহার দিয়েছেন। ১০ চারে ১০৫ রান করে হামজার বলেই ক্যাচ দিয়েছেন হাসমতউল্লাহকে।

বিজ্ঞাপন

একসময় ৩৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসা জিম্বাবুয়েকে টেনে তোলার পথে সিকান্দার রাজার (৪৩) সাথে ৭১, রেগিস চাকাভার (৪৪) সঙ্গে ৭৫ রানের দুটি গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়ে লড়েন বাঁহাতি উইলিয়ামস। তুলে নেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় সাদা পোশাকের সেঞ্চুরি।


রশিদ খানের অনুপস্থিতিতে আফগানদের নায়ক হয়ে ওঠেন আমির হামজা। ৭৫ রান খরচায় নামের পাশে ৬ উইকেট যোগ করেন মাত্র দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নামা ২৯ বছর বয়সী বাঁহাতি স্পিনার। তার আগের খেলা টেস্টটি সেই ২০১৯ সালের নভেম্বরে। যে ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন অভিষেকেই।

হামজার দিনে ২ উইকেট নিয়েছেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার জাহির খান। একটি করে উইকেট নিয়েছেন ইয়ামিন আহমাদজাই ও ইব্রাহিম জাদরান।

ম্যাচসেরা উইলিয়ামসের সেঞ্চুরিতে আসা সেই রানই বোঝা হয়ে যায় আফগানদের। দ্বিতীয় ইনিংসেও ১৩৫ রানের বেশি করতে পারেনি তারা। জিম্বাবুয়েকে জয়ের জন্য লক্ষ্য দিতে পারে মাত্র ১৭ রানের। যা কোনো উইকেট না হারিয়েই ছুঁয়ে ফেলে উইলিয়ামসের দল।