চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হত্যাকাণ্ড ঠেকাতে বইমেলাতে অালোর ঝলকানি

একুশের বই মেলাকে ঘিরে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। পুরো এলাকাটি সিসি টিভি ক্যামেরা নেটওয়ার্কের আওতায় এনে ৯টি ওয়াচ টাওয়ার বসানো হয়েছে। পুলিশ কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া জানিয়েছেন, ব্লগার লেখক অভিজিত নিহত হওয়ার মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সেজন্য সর্তক রয়েছে পুলিশ।

ভাষার মাসের প্রথম দিন থেকেই বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ এবং লাগোয়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বসছে মাসব্যাপি বইমেলা। চলছে স্টলগুলো তৈরি করার কাজ। এবার বইমেলাকে ঘিরে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের দুই পাশে বসানো হয়েছে র‌্যাব ও পুলিশের ক্যাম্প। সেই সঙ্গে চলছে সিসি টিভি ক্যামেরা এবং ওয়াচ টাওয়ার বসানোর কাজ।

রমনা থানার অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইব্রাহীম খান বলেন,বাংলার প্রাণের মেলা এই মহান একুশে বইমেলাকে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বইমেলার প্রবেশ গেটের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। প্রবেশ গেটগুলোতে আমাদের পর্যাপ্ত পুলিশ ফোর্স মোতায়েন থাকবে। তাছাড়া আমরা সোহরাওয়ার্দি উদ্যানের ভেতরে, বাংলা একাডেমির ভেতরে, টিএসসিতে, দোয়েল চত্বরে ৮টি ওয়াচ টাওয়ার করছি। সিসিটিভির সংখ্যা অনেক বাড়ানো হয়েছে। শাহবাগ মোড় থেকে দোয়েল চত্বর পর্যন্ত সিসিটিভির আওতায় চলে আসবে। প্রত্যেকটি জায়গায় আমাদের মোবাইল টিম থাকবে। এর মাধ্যমে আমরা বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণসহ আশেপাশের সম্পূর্ণ এলাকাকে নিরাপত্তা বলয়ে নিয়ে আসবো।

Advertisement

সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইনে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে জনসচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, গত বই মেলায় আলোর স্বল্পতার সুযোগ নিয়ে দুর্বৃত্তরা ব্লগার, লেখক অভিজিতের উপর হামলা চালিয়েছিলো।

আসাদুজ্জামান মিয়া বলেন, গতবার যে দুর্ঘটনা ঘটলো এখানে আমার অবজারভেশন এখানে কিছু আলোর অপর্যাপ্ততা ছিলো। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিশেষ করে টিএসসি, সোহরাওয়ার্দি উদ্যান এলাকা যাতে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা হয়, যাতে করে আমরাও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দিতে পারি এবং জাতিকে আমরা শঙ্কামুক্ত করতে পারি।

ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, আমি এক তারিখের মধ্যে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করে দিবো ইনশাল্লাহ। আমি বলেছি এই ফেব্রুয়ারি মাসে একুশে ফেব্রুয়ারিতে আমাদের যে শহীদ মিনার এলাকা রয়েছে সেই এলাকাটাতে আমাদের যে বাতির ব্যবস্থা রয়েছে সেটাকে পরিবর্তন করে একুশ তারিখের মধ্যে আমরা এলইডি লাইটে পরিবর্তন করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।

বই মেলাকে ঘিরে পোশাকধারী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।