চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘স্মার্ট টিভি’ ব্যবহারে সতর্ক থাকার আহ্বান এফবিআইয়ের

হালের সেনসেশন ‘স্মার্ট টিভি’ হ্যাকারদের গুপ্তরবৃত্তির জন্য সহজ  মাধ্যম হতে পারে বলে সতর্ক করেছে মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই ।)

ইন্টারনেটের সঙ্গে সংযুক্ত থেকে কম্পিউটারের বিশেষ বৈশিষ্ট্যগুলো যুক্ত করার মাধ্যমে পরিচিত টেলিভিশনগুলোই হলো স্মার্ট টিভি। কম্পিউটার, ফ্ল্যাটস্ক্রিন টেলিভিশন ও সেট টপ বক্সের একটি বিশেষ সমন্বয় থাকে এতে। ইন্টারনেট সংযোগ, ভিডিও, অ্যাপ ও গেম, ডিভিআর, সেন্সর ইত্যাদি এর বৈশিষ্ট্য।

বিজ্ঞাপন

মার্কিন সংবাদ মাধ্যম সিএনএন জানায়, কয়েক বছর ধরে স্মার্ট টিভির জনপ্রিয়তা উর্ধ্বমুখী। অনেকে নিজের ব্যাংক ব্যালেন্সকে পাত্তা না দিয়ে স্মার্ট টিভি কিনছেন। কিন্তু সামান্য অসচেতনতার কারণে এই শখের স্মার্ট টিভিই আপনার সর্বনাশ করে দিতে পারে হ্যাকারদের কল্যাণে।

এফবিআই এক সতর্ক বার্তায় জানায়, আপনার কেনা স্মার্ট টিভিগুলো সাইবার অপরাধী কর্তৃক আপনার ব্যক্তিগত বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে পারে। হতে পারে আপনার ক্ষতির কারণ। ইন্টারনেট সংযুক্ত এসব স্মার্ট টিভি অনধিকার প্রবেশ ব্যবহারকারীর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

উন্নত প্রযুক্তিগত বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন টেলিভিশন নির্মাতা এবং অ্যাপ বিকাশকারীরা গ্রাহকদের ওপর কীভাবে নজরদারী করতে পারে তার রূপরেখা তোলে ধরার পাশাপাশি এফবিআই বলছে, সাইবার অপরাধীরা অনিরাপদ স্মার্ট টিভিগুলির নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে এবং অসচেতন গ্রাহকদের সম্ভাব্য ধ্বংসযজ্ঞের কারণ হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

এফবিআইয়ের সতর্কতামূলক বিবৃতিতে আরও বলা হয়, হ্যাকারেরা চ্যানেল পরিবর্তন করতে, শব্দ নিয়ন্ত্রণ করতে এবং বাচ্চাদের নিষিদ্ধ ভিডিও দেখাতে পারে। সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি হতে পারে, তারা আপনার বেডরুমের টিভি ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন চালু করতে পারে এবং নিঃশব্দে আপনার মানহানিকর কিছু করে বসতে পারে।

সম্ভাব্য এই ক্ষতি থেকে রক্ষা পেতে এফবিআই সুপারিশও করেছে কিছু।

এফবিআই জানায়, স্মার্ট টিভির নিরাপদ ব্যবহার করতে হলে গ্রাহকদের তার সেটিংস নিজেদের শিখে নিতে হবে। সাধারণ গুগল সার্চেও তা শেখা যেতে পারে। আর উৎপাদনকারীদের দ্বারা সেট করা ত্রুটিপূর্ণ নেটওয়ার্কের পাসওয়ার্ডগুলি পরিবর্তন করা যেতে পারে এবং মাইক্রোফোন ও ক্যামেরা কীভাবে সচল এবং অসচল করা যায় তা জেনে নিতে হবে।

ব্রিটিশ সাইবার সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞ ম্যাট টেইটও স্মার্ট টিভি নিয়ে সতর্ক করে বলেন, স্মার্ট টিভি এবং ডিভাইসগুলির মধ্যে জটিল সফটওয়্যার, ইন্টারনেট সংযোগ এবং মাইক্রোফোনের মতো সংহত সেন্সর থাকে, যা ইন্টারনেট স্ট্রিমিং পরিষেবার প্রক্রিয়ায় ডিভাইসটি দুর্ভাগ্যবশত হ্যাকারদের দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে।

তিনি এটাও জানান যে, সাধারণত যারা তাদের ডিভাইসগুলি আপ টু ডেট রাখেন তাদের খুব বেশি চিন্তিত হওয়ার কারণ নেই।

তবে যারা বেশি উদ্বিগ্ন এবং  যারা স্মার্ট বৈশিষ্ট্যগুলির পরিষেবা চান না তাদের হ্যাকারদের থেকে দূরে থাকার সহজ সমাধান হলো, আপনার নেটওয়ার্ক থেকে ডিভাইসটি আনপ্লাগ করে রাখুন।

Bellow Post-Green View