চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাউথের পার্লামেন্টে নর্থ কোরিয়াকে ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সাউথ কোরিয়ার পার্লামেন্টে নর্থ কোরিয়াকে সরাসরি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। ‘আমাদেরকে অবমূল্যায়ন করবেন না। আমাদের উস্কাবেন না,’ নর্থ কোরীয় প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের উদ্দেশ্যে বলেন তিনি।

একই সঙ্গে আঁধার জগতের প্রতি নর্থ সরকারের আগ্রহেরও নিন্দা জানান তিনি। কিমকে বলেন, ‘আপনারা যে অস্ত্র যোগাড় করছেন সেগুলো আপনাদের নিরাপদ করছে না। বরং আপনাদের শাসনব্যবস্থাকে আরও বেশি ঝুঁকিতে ফেলছে।’

নর্থ কোরিয়া গোটা বিশ্বের জন্য একটা হুমকি, যার বিরুদ্ধে গোটা বিশ্বের ব্যবস্থা নেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ট্রাম্প।

টানা ১২ দিনের ‘ম্যারাথন’ এশিয়া সফরের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সাউথ কোরিয়ায় পৌঁছান ট্রাম্প। সফরের এই দ্বিতীয় গন্তব্যে তিনি মোট দু’দিন থাকবেন।

বিজ্ঞাপন

বক্তব্যে ট্রাম্প প্রশংসা করে বলেন, কোরীয় যুদ্ধের পর থেকে এ পর্যন্ত সাউথ কোরিয়ার অর্জন নর্থের তুলনায় অনেক বেশি। ওই যুদ্ধকে তিনি ‘ইতিহাসের ল্যাবরেটরিতে এক মর্মান্তিক পরীক্ষা’ বলে মন্তব্য করেন।

এছাড়া পিয়ংইয়াংয়ের পূর্ণমাত্রার পরমাণু শক্তিধর হওয়া ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্র সামরিক হস্তক্ষেপ করতেও প্রস্তুত আছে বলে আবারও নর্থকে সাবধান করেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, দেশটি হয়তো যুক্তরাষ্ট্রের অতীতে নিরব থাকাটাকে দুর্বলতা মনে করেছে। কিন্তু বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র নতুন এক প্রশাসনের অধীনে চলছে। ট্রাম্প পারমাণবিক অস্ত্র কর্মসূচি বন্ধ করতে কিমের প্রতি জোরালো আহ্বান জানান।

এর একদিন আগেই এশিয়া সফরের শুরুতে জাপানে অবস্থানকালে ট্রাম্প বলেছিলেন, নর্থ কোরিয়ার সঙ্গে কৌশলগত ধৈর্য দেখানোর যুগ শেষ।

বিবিসি জানিয়েছে, পিয়ংইয়াংয়ের হুমকি মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে পরমাণু অস্ত্র বহনযোগ্য ডুবোজাহাজ কিনবে সাউথ কোরিয়া। ট্রাম্প জানান, সিউল কয়েক বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র কিনবে। সাউথ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে ইনের সঙ্গে বৈঠকের পর ট্রাম্প জানিয়েছেন, সিউল যুক্তরাষ্ট্র থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র কিনবে যার মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্য ঘাটতি দূর হবে।

বিজ্ঞাপন