চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সময়ের আগেই এসে গেল অ্যান্ড্রয়েড ১১

চলে এলো টেক জায়ান্ট ‍গুগলের মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণ অ্যান্ড্রয়েড ১১। ইতোমধ্যে এর প্রথম ডেভেলপার প্রিভিউ প্রকাশ করেছে গুগল।

এখন অ্যাপ ডেভেলপাররা চাইলেই এই প্রিভিউ সংস্করণটি ডাউনলোড করে ব্যবহার করে দেখতে পারবেন।

‘ডেভেলপার প্রিভিউ’ হলো কোনো অ্যাপ, সফটওয়্যার বা অপারেটিং সিস্টেমের পূর্ণাঙ্গ, তবে পরীক্ষামূলক সংস্করণ। এটি মূলত অ্যাপ্লিকেশন যারা তৈরি বা উন্নয়ন করেন, বা নিয়মিত যাচাই করেন, সেই ডেভেলপারদের উদ্দেশ্যে বাজারে ছাড়া হয়।

ডেভেলপারদের বিভিন্ন অ্যাপের খুঁটিনাটি সম্পর্কে ধারণা তুলনামূলক স্পষ্ট হওয়ায় তারা এই প্রিভিউ সংস্করণ ব্যবহার করে যাচাইবাছাই করে এর ভালোমন্দ ও দোষগুণ সম্পর্কে জানান। সে অনুযায়ী নির্মাতা কোম্পানি সেই অ্যাপে সংশোধন এনে চূড়ান্তভাবে সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য প্রকাশ করে।

গুগল সাধারণ প্রতি বছরের মার্চে অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণের ডেভেলপার বিল্ড ছেড়ে থাকে। কিন্তু এবার সেই নির্ধারিত সময়ের কিছুটা আগেই প্রকাশ পেল অ্যান্ড্রয়েড ১১।

মোটাদাগে নতুন অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণটিতে রয়েছে ফোল্ড করা যায় এমন স্মার্টফোন ও স্ক্রিনের উপযোগী বিশেষ ফিচার, ক্যামেরা সফটওয়্যারে নতুন সংযুক্তি, গোপনীয়তার নিরাপত্তাভিত্তিক বিভিন্ন টুল, আরও সুবিধাজনক অ্যাপ প্রকৃতি, ৫জি সংশ্লিষ্ট কিছু উন্নয়নসহ আরও বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য।

প্রথম ডেভেলপার প্রিভিউ প্রকাশের পর একে একে সাধারণত কয়েকটি সংশোধিত সংস্করণ প্রকাশ করে থাকে গুগল, যতক্ষণ না সব ত্রুটি কাটিয়ে একটি স্থিতিশীল সংস্করণ পাওয়া যাচ্ছে। ডেভেলপার প্রিভিউ প্রকাশের সাথে সাথে এবার প্রতিষ্ঠানটি আসন্ন সংশোধিত বিল্ডগুলো ছাড়ার সম্ভাব্য সময়সূচিও জানিয়ে দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

গুগল জানায়, প্রথম অ্যান্ড্রয়েড ১১ ডেভেলপার প্রিভিউ সংস্করণের জন্য নির্ধারিত সিস্টেম ইমেজ এবং জিএসআই ফাইল ইতোমধ্যে গুগলের নিজস্ব ডিভাইস পিক্সেল ৪, পিক্সেল ৩এ, পিক্সেল ৩ এবং পিক্সেল ২’র জন্য ডাউনলোড করতে পাওয়া যাচ্ছে। এটিও গুগল স্পষ্ট করে বলে দিয়েছে যে, এই প্রিভিউ বিল্ড একান্তই ডেভেলপারদের জন্য এবং সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য নয়।অ্যান্ড্রয়েড ১১

তবে সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য বেটা টেস্টিং বা পরীক্ষামূলক সংস্করণ শিগগিরই আসতে যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে। বেটা টেস্টিং ডাউনলোডটি শুধুই আমন্ত্রিত ব্যবহারকারীদের জন্য। এই আমন্ত্রণ বা ইনভিটেশন পাওয়ার জন্য নাম তালিকাভুক্তি শিগগিরই শুরু হবে বলে জানিয়েছে গুগল।

অ্যান্ড্রয়েড ১১ প্রকাশের সময়সূচি
অ্যান্ড্রয়েড ১১ ডেভেলপার প্রিভিউ ১: ফেব্রুয়ারি
অ্যান্ড্রয়েড ১১ ডেভেলপার প্রিভিউ ২: মার্চ
অ্যান্ড্রয়েড ১১ ডেভেলপার প্রিভিউ ৩: এপ্রিল
অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেটা ১: মে
অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেটা ২: জুন
অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেটা ৩: কিউ৩ ২০২০
অ্যান্ড্রয়েড ১১ ফাইনাল বিল্ড: কিউ৩ ২০২০

নতুন কী থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১১-এ
অ্যান্ড্রয়েড ১১-এ ওয়াটারফল থেকে শুরু করে হোল-পাঞ্চসহ নানারকম স্ক্রিন টাইপের জন্য থাকছে সাপোর্ট। এমনকি ভাঁজ করা যায় এমন স্ক্রিনের ভাঁজযুক্ত অংশটি কীভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে, এমন কিছু অর্থবহ অপশনও রাখা হয়েছে এতে।

নতুন এই সংস্করণে চ্যাট এবং কনভারসেশনের জন্য নোটিফিকেশনস অংশটিতে আলাদা একটি জায়গাই থাকছে, যেন যে কোনো অ্যাপ চালু থাকা অবস্থায় ব্যবহারকারী চ্যাট বাবলের মাধ্যমে সহজেই কথাবার্তা চালিয়ে যেতে পারেন।

অ্যান্ড্রয়েড ১১-এর আরেকটি সুবিধাজনক ফিচার হলো, এটিতে ক্রোম থেকে ছবি কপি করে সরাসরি নোটিফিকেশন প্যানেলে থাকা চ্যাটের রিপ্লাইয়ে জিবোর্ডের মাধ্যমে পেস্ট করে দেয়া যাবে।অ্যান্ড্রয়েড ১১

গোপনীয়তা এবং নিরাপত্তার ক্ষেত্রেও পরিবর্তন এসেছে অ্যান্ড্রয়েড ১১-এ। এতে বিভিন্ন অ্যাপ ডিভাইসের লোকেশন বা অবস্থান, মাইক্রোফোন অথবা ক্যামেরা ব্যবহার করতে চাইলে একটি ওয়ান-টাইম বা এককালীন পারমিশন ফিচারের মাধ্যমে সাময়িকভাবে সেগুলো ব্যবহারের অনুমতি দেয়া যাবে।

এছাড়াও গুগলের এই নতুন অপারেটিং সিস্টেম অ্যাপভেদে বায়োমেট্রিক তথ্য, অর্থাৎ মূলত আঙ্গুলের ছাপ ব্যবহারের পরিসর বাড়িয়েছে আগের অপারেটিং সিস্টেমগুলোর চেয়ে। এতে ড্রাইভিং লাইসেন্স ও জাতীয় পরিচয়পত্রের মতো শনাক্তকারী আইডি সুরক্ষিত উপায়ে সংরক্ষণ ও পুনরুদ্ধারের জন্য আলাদা প্ল্যাটফর্ম যুক্ত করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞাপন