চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সফটওয়্যারের মাধ্যমে অনলাইনে ভাষা শিক্ষা

বুয়েট উদ্ভাবিত ‘ভাষাগুরু’ সফটওয়্যারের মাধ্যমে ৯টি ভাষা শিক্ষা প্রশিক্ষণ শুরু

দেশে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভাষা শিক্ষায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) উদ্ভাবিত ‘ভাষাগুরু’ সফটওয়্যারের মাধ্যমে ভাষা শিক্ষা প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে।

দেশের ৬৪টি জেলার ১ হাজার ২৪ জন শিক্ষককে আরবি, জাপানি, ইংরেজি, স্পেনিশ এবং জার্মানিসহ ৯টি ভাষার ওপর পর্যায়ক্রমে এ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

দেশব্যাপী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে আইসিটি বিভাগের কম্পিউটার ও ল্যাংগুয়েজ ল্যাব প্রতিষ্ঠা বিষয়ক প্রকল্পের অধীনে বুয়েট এই প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শনিবার ঢাকায় বুয়েটের সিএসই বিভাগের ল্যাবে ভাষা প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে টেলিযোগাযোগমন্ত্রী দেশের তৈরি সফটওয়্যারের মাধ্যমে এ ধরনের কর্মসূচিকে ঐতিহাসিক ঘটনা উল্লেখ করে বলেন, সফটওয়্যারের মাধ্যমে ভাষা প্রশিক্ষণে বাংলাদেশের উদ্ভাবিত এই সফটওয়্যারটি জানামতে পৃথিবীতে এটিই প্রথম। দেশের মানুষ বুয়েটের এই উদ্ভাবনের জন্য বুয়েটের কাছে কৃতজ্ঞ।

“এই অর্জন ডিজিটাল বাংলাদেশের অর্জন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্জন। তিনি বাংলাদেশকে সিঙ্গাপুরের লিকুয়ান এবং মালয়েশিয়ার ড. মাহাথির মোহাম্মদের মতই এগিয়ে নিয়ে গেছেন। ৫৫০ ডলারের মাথা পিছু আয়ের বাংলাদেশকে গত দশ বছরে ১ হাজার ৭৫২ ডলারের মাথা পিছু আয়ের দেশে পৌঁছে দিয়েছেন।”

Advertisement

তিনি আরো বলেন, একজন নেতা কী পরিমাণ দূরদৃষ্টি সম্পন্ন হলে ভিশন ২০২১, ভিশন ২০৪১ এবং বদ্বীপ পরিকল্পনা ২১০০ সাল প্রণয়ন করতে পারেন তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।”

‘বাংলাদেশের ২৩ বছর আগে স্বাধীন হওয়া দু‘টি দেশের তুলনায় বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তিন মেয়াদের ১৫ বছরের শাসনে উন্নয়নের প্রায় প্রতিটি সূচকে এগিয়ে আছে। বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।’

এধারা আগামী পাঁচ বছর অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশ পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ দেশের কাতারে পৌঁছুবে বলে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন মোস্তাফা জব্বার।

তিনি প্রশিক্ষনার্থীদের প্রতি প্রশিক্ষণ লব্দ জ্ঞান কাজে লাগিয়ে নতুন প্রজন্মকে ভাষা শিক্ষার মাধ্যমে কর্মসংস্থানে বিশেষ করে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় যথাযথ অবদান রাখার আহ্বান জানান।

দেশের কর্মক্ষম শতকরা ৬৫ ভাগ তরুণ জনগোষ্ঠীকে জনসম্পদে গড়ে তুলতে ভাষা শিক্ষার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, জাপানসহ পৃথিবীর অনেক দেশের শতকরা ৬৫ ভাগ জনগোষ্ঠী প্রবীন। ঐ সকল দেশের শ্রমবাজারে উপযোগী মানবসম্পদ তৈরিতে ভাষা শিক্ষার গুরুত্ব অপরিহার্য।

তিনি পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপী প্রতিষ্ঠিত ডিজিটাল ল্যাবগুলোতে ভাষা শিক্ষার উদ্যোগ গ্রহণের পাশাপাশি উদ্ভাবিত সফটওয়্যারের মাধ্যমে অনলাইনে ভাষা শিক্ষা প্রদান করা হবে বলে জানান।

বুয়েটের সিএসই বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. মো: মোস্তফা আকবরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বুয়েট ভিসি প্রফেসর ড. সাইফুল ইসলাম এবং আইসিটি বিভাগের মহাপরিচালক খাইরুল আলম অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।