চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সন্দ্বীপে মেছো বাঘ পিটিয়ে মেরে উল্লাস!

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে দিন দিন উজাড় করা হচ্ছে প্রাকৃতিক শোভাবর্ধনকারী ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষাকারী বাগান। স্থানীয়দের দৌরাত্ম্যে যেমন বিলুপ্ত হচ্ছে সাগর তীরের কেওড়া বাগান তেমনি বিলুপ্ত হচ্ছে ঝোপঝাড়ে বেড়ে উঠা প্রাণীজগৎ। সন্দ্বীপে উপকূলীয় এলাকায় বন্য প্রাণী ক্রমেই বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে।

সন্দ্বীপ উপজেলা পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডে একটি মেছো বাঘ পিটিয়ে হত্যা করে উল্লাসে মেতে উঠেছে গ্রামবাসী।

বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী স‍ূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকালের দিকে উপজেলার পৌরসভার একটি গ্রামে খাবার সংগ্রহের জন্য লোকালয়ে ঢুকে পড়লে গ্রামবাসী জোটবদ্ধ হয়ে ধাওয়া করে বাঘটিকে পিটিয়ে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখে। এ সময় বিপন্ন প্রজাতির মেছো বাঘটি দেখতে আশে পাশের কয়েক’শ মানুষ ভিড় জমায়। স্থানীয় কিছু উঠতি তরুণ বাঘটিকে হত্যা করে উল্লাসও করে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মোহাম্মদ দিদার জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে তাদের এলাকায় মেছো বাঘের উপদ্রব শুরু হয়েছে। লোকালয়ে ঢুকে বাড়ির মুরগি থেকে শুরু করে ছাগলের বাচ্চা খেয়ে ফেলছে। বাহার নামের একজন জানান, গ্রামের অদূরে খালের ঝোপঝাড় ও কবরস্থানের ঝোপঝাড়ে মেছো বাঘের আনাগোনা আছে। এখানে প্রায় ৩টা মেছো বাঘ আছে। একটি বাঘ এলাকায় প্রবেশ করে মুরগি, ছাগল খেয়ে ফেলে। গরুকে কামড়ায়, লোকালয়ে ঢুকে মানুষ দেখলে দৌড়ায়।

স্থানীয় পৌরসভার মেয়র জাফল উল্লাহ জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে একটি বাঘ গ্রামে প্রবেশ করে গৃহপালিত পশুদের উপর হানা দেয়। গতকাল এলাকার ১ থেকে ২ শত লোকজন বাঘটিকে ধাওয়া করে হত্যা করে। তবে, এতগুলো মানুষের মধ্যে ঘটনার সাথে প্রকৃতপক্ষে কারা জড়িত তা জানাতে পারেননি তিনি।

এ ব্যাপার স্থানীয় সংসদ সদস্য মহফুজুর রহমান মিতা বলেন, গ্রামবাসীর মধ্যে সচেতনতার অভাবে এ ধরনের বিপন্ন প্রাণী হারিয়ে যাচ্ছে। মেছো বাঘ দেখলেই গ্রামবাসী কৌতূহলী ও অতি উৎসাহী হয়ে হত্যা করছে। গ্রামবাসীর হাত থেকে এদের বাঁচানো যাচ্ছে না।