চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কা সফরে প্রস্তুতি ম্যাচের আশায় বাংলাদেশ

ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলতে ২০ সদস্যের বাংলাদেশ দল রয়েছে নিউজিল্যান্ডে। সেখান থেকে ফিরেই দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা যাবে টিম টাইগার্স। সাদা বলের ক্রিকেট থেকে হুট করেই লাল বলে মানিয়ে নেওয়ার চ্যালেঞ্জ থাকবে তামিম-মুশফিকদের সামনে। সে কারণে এপ্রিলে শ্রীলঙ্কা সফরে প্রস্তুতি ম্যাচ পাওয়ার আশা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

দুই পক্ষের মধ্যে চলছে শেষ পর্যায়ের আলোচনা। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান আশাবাদী টেস্টের আগে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে সফরকারী দল।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘নিঃসন্দেহে আমরা এখন যে সংস্করণে খেলছি ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি খেলে বাংলাদেশ দল দেশে আসবে। এখানে যারা টেস্ট টিমের খেলোয়াড়রা আছে তারা দুই-একদিন অনুশীলন করেছে। দুই তিন দিনের মধ্যে সবাই এক সাথে অনুশীলন করবে। ভালো ব্যাপার হলো ওরা যাওয়ার আগে এখানে জাতীয় লিগ হচ্ছে। যারা দেশে আছে তারা খেলতে পারবে। পাশাপাশি ওখানে (শ্রীলঙ্কায়) আমরা চাচ্ছি একটা প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলার জন্য। সম্ভবত আমরা সেটি পাব।’

বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কা সফরে সাত দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে বাংলাদেশ দলকে। উন্নত সুযোগ-সুবিধার কারণে বিসিবির চাওয়া কলম্বোয় প্রথম সপ্তাহ কাটানোর। কিন্তু আয়োজক দেশ শ্রীলঙ্কা চায় বাংলাদেশ দলকে কলম্বোর বাইরের কোনো শহরে রাখতে।

ঝুলে থাকা এ ব্যাপারে দ্রুতই সিদ্ধান্ত হবে বলে জানান আকরাম, ‘মোটামুটি ফাইনাল আমরা শ্রীলঙ্কা যাচ্ছি। নিউজিল্যান্ড থেকে এসেই তো আমরা চলে যাচ্ছি। তিন-চার দিন পর। যেহেতু ওরা আয়োজক ওরা আমাদের ভেন্যু এবং সব কিছুর ব্যাপারে ফাইনাল করবে কিছুদিনের মধ্যে।’

‘যতটুকু আমরা জানি সেটা হলো, একই ভেন্যুটি দুটি টেস্ট হবে। ভেন্যুটা ওরাই জানাবে আমাদেরকে। প্রথমে কোয়ারেন্টিনের যে ব্যাপারটা আছে সেটা ওরা যাচ্ছে যেন আমরা কলম্বোর বাইরে থাকি। কিন্তু আমরা চেষ্টা করছি কলম্বোতে রাখার জন্য। যেহেতু ওখানে ভালো সুযোগ-সুবিধা। এটাও দুই-তিন দিনের মধ্যে নিশ্চিত হবে।’