চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শিরোপা জিতিয়ে তবেই টটেনহ্যাম ছাড়বেন মরিনহো

প্রায় ১২ মৌসুম হতে চললো শিরোপার স্বাদ পায় না টটেনহ্যাম হটস্পার। সেই খরা দ্রুতই কাটবে বলে আত্মবিশ্বাসী ক্লাবটির পর্তুগিজ মাস্টার মাইন্ড হোসে মরিনহো। খরা কাটিয়ে তবেই ক্লাব ছাড়বেন বলে জানিয়েছেন স্পেশাল ওয়ান।

২০০৮ সালে লিগ কাপ জেতার পর আর কোনো শিরোপার স্বাদ পাওয়া হয়নি স্পারদের। আর্জেন্টাইন কোচ মউরিসিও পচেত্তনির হাত ধরে গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রানার্সআপ হয়েছে দলটি। চলতি মৌসুমে পচেত্তনিকে ছাঁটাই করে দলের দায়িত্ব তুলে দেয়া হয়েছে চেলসি, রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক কোচ মরিনহোর কাঁধে।

বিজ্ঞাপন

ওয়েম্বলিতে এসে অবশ্য কোনো জাদু দেখাতে পারেননি মরিনহো। বরং আগামী চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার যোগ্যতাও হারিয়েছে স্পাররা। প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট টেবিলে আছে নয়ে।

এই দুর্দশা দ্রুতই কাটবে বলেও স্পারদের কথা দিয়েছেন তিন বছরের চুক্তিতে আসা মরিনহো। ৩০ বছর পর লিগ শিরোপা জেতা লিভারপুলকেই প্রমাণ হিসেবে দেখিয়েছেন দুবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী কোচ। চার বছর ধরে ধৈর্য নিয়ে লিভারপুলকে যেভাবে গড়েছেন জার্মান কোচ ইয়ূর্গেন ক্লপ, সে রাস্তায় টটেনহ্যামকেও শিরোপা জেতাতে চান তিনি।

বিজ্ঞাপন

‘লিভারপুল আর ইয়ূর্গেনের কত সময় লেগেছে? চার বছর, চার মৌসুম। বিশ্বের অন্যতম সেরা গোলরক্ষককে কেনা হয়েছে, বিশ্বের অন্যতম সেন্টার ব্যাকও এসেছে। এছাড়া আরও, আরও, আরও।’

‘আমি আমার তিন বছরের চুক্তির দিকে নজর রাখছি। বিশ্বাস করি এই তিন বছরে আমরা শিরোপা জিততে পারবো। আর যদি নাও পারি, অন্তত একটা নতুন যুগের সূচনা করে দিয়ে যেতে পারবো। আমি এতেই খুশি।’

‘আমি ক্লাবের জন্য কাজ করি। নিজেকে নিয়ে ভাবি না। আমার স্বপ্ন এক, চিন্তাভাবনাও এক। তবে এখন এমন পর্যায়ে আছি যেখানে ক্লাবের চেয়ে আমি আমাকে, আমার রেকর্ড নিয়ে ভাবার বেশি সময় পাই না।’

‘আমি ইতিবাচক, কারণ প্রথমদিন থেকেই কাজ শুরু করেছি। বিশ্বাস করি কিছু ছোট ছোট জায়গায় পরিবর্তন আনলেই চলবে, অতীতের বড় বড় দলবদলের প্রয়োজন নেই।’