চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের দাবি উত্তরের প্রার্থীদের

উত্তরে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর সঙ্গে লটারি জিতে টেবিল ঘড়ি প্রতীক পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আনিসুল হক। বাসপ্রতীক পেয়েছে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। শনিবার বেলা ৫টার মধ্যে সব প্রার্থীদের প্রতীকের নমুনা রিটার্নিং অফিসারের কাছে জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার।

আগারগাঁয়ে রিটার্নিং অফিসারের অস্থায়ী কার্যালয়ে উত্তরের ১৬ জন মেয়র প্রার্থীর প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়ে রিটার্নিং অফিসার প্রতীক বরাদ্দ কার্যক্রম শুরু করেন। শুরুতেই আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আনিসুল হক এবং বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী তাবিথ আউয়াল দু’জন একই প্রতীক টেবিল ঘড়ি চান।পরে রিটার্নিং অফিসার দু’পক্ষকে সমঝোতার জন্য ৫ মিনিট সময় দেন এবং সমঝোতা না হওয়ায় লটারি হয়। লটারিতে টেবিল ঘড়ি জিতেন আনিসুল হক। আনিসুল হকের পক্ষে তার প্রতিনিধি প্রতীক নেন। বাস প্রতীক পান বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী তাবিথ আউয়াল।

Reneta June

তাবিথ আউয়াল বলেন, ‘আজ থেকে বাস প্রতীক নিয়ে আমরা প্রচারণা শুরু করবো। তারূণ্য আর মেধাই আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি। অন্যান্যপ্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের কাউকেই আমরা ছোট করে দেখছি না। জনগনের সমর্থন আমরা পাব।’

বিজ্ঞাপন

পরে জাতীয় পার্টির প্রার্থী বাহাউদ্দিন আহমেদ চরকা প্রতীক, জাসদ সমর্থিত প্রার্থী নাদের চৌধূরী ময়ুর, জুনাইদ সাকী টেলিস্কোপ, কাফী রতন হাতীসহ বাকী মেয়র প্রার্থীরা তাদের পছন্দের প্রতীক বেছে নেন। এসময় বেশ কিছু সমন্বয়হীনতার কথাও তুলে ধরেন প্রার্থীরা। এক দলের প্রার্থীকেই নয় বরং সবাইকে সমান সুযোগ দিতে হবে বলে জানানতারা। লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডেরও দাবি জানান সকলে। তা না হলে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বিঘ্নিত হবে বলেই মন্তব্য তাদের। একেবারে শেষে মাহী বি চৌধুরীর পক্ষে ঈগল পাখি প্রতীক গ্রহণ করেন মাহীর প্রতিনিধি।

উত্তরে সাধারণ কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন ২৭৭ জন। আর সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে লড়বেন ৮৮ জন প্রার্থী।