চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রুমানার বীরত্বে পাকিস্তানকে হারাল বাংলাদেশ

পাকিস্তানকে ৩ উইকেটে হারিয়ে মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব শুরু করেছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে পাকিস্তানের দেয়া ২০২ রানের লক্ষ্য টিম টাইগ্রেস তাড়া করে ৭ উইকেট হারিয়ে ২ বল হাতে রেখে।

রুমনা আহমেদ ৪৪ বলে ৫০ ও সালমা খাতুন ১৩ বলে ১৮ রানে অপরাজিত থেকে বাংলাদেশকে জয় এনে দেন। শারমিন আক্তার ৬৭ বলে ৩১, ফারজানা হক ৯০ বলে ৪৫ ও রিতু মনি ৩৭ বলে ৩৩ রানের ইনিংস খেলেন।

রোববার টস জিতে আগে বোলিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। ৪৯ রানে ৫ উইকেট তুলে নিয়েও পাকিস্তানকে অল্পতে আটকানো যায়নি। ২০২ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে মন্থর গতিতে রান তোলায় জয়ের পাল্লা ঝুঁকে যাচ্ছিল পাকিস্তানের দিকে।

লাল-সবুজ অধিনায়ক ও অন্যতম সেরা মিডলঅর্ডার ব্যাটার নিগার ২৬ বলে করেন মাত্র ৪ রান। দলীয় ১০০ রান আসে ৩৬তম ওভারে। পরে দ্রুত রান তোলার চ্যালেঞ্জে ভালোই এগিয়ে যাচ্ছিলেন রুমানা ও রিতু। শেষ ৫ ওভারে ৫ উইকেট হাতে রেখে দরকার পড়ে রান ৪৩ রান।

বিজ্ঞাপন

রিতু আউট হলে ভাঙে ৬১ রানের ষষ্ঠ উইকেট জুটি। লতা মণ্ডল ও ফাহিম খাতুন পরপর দুই বলে উইকেট দেন ওমাইমা সোহেলকে। ১ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে একরকম ছিটকে যাওয়ার শঙ্কা জাগে।

ওমাইমার পরের ওভারে রুমানা তিনটি ও সালমা একটি চার মেরে জয়ের আশা জাগান। শেষ পর্যন্ত তাদের বীরত্বেই ম্যাচ জেতে বাংলাদেশ। অষ্টম উইকেট জুটিতে অবিচ্ছিন্ন থেকে ২৫ বলে তারা যোগ করেন ৪২ রান।

আগে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান শুরুতে বিপদে পড়ে। পঞ্চাশের আগেই হারায় পাঁচ ব্যাটারকে। ১৩৭ রানের ষষ্ঠ উইকেট জুটি তাদেরকে নিয়ে যায় দুইশ পেরোনো সংগ্রহে।

নিদা দার ১১১ বলে ৮৭ রান করে আউট হন। আলিয়া রিয়াজ ৮২ বলে ৬১ করে অপরাজিত থাকেন। ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে তারা তোলে ২০১ রান।

রিতু মনি ও নাহিদা আক্তার নেন দুটি করে উইকেট। সালমা ও রুমানা নেন একটি করে উইকেট। আগে মুখোমুখি তিন দেখায় দুইবার পাকিস্তানকে হারিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। এবার মিলল তৃতীয় জয়ের দেখা।

বিজ্ঞাপন