চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রায়হান হত্যায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হবে: সিলেটের পুলিশ কমিশনার

সিলেট বন্দরবাজার ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনে রায়হানের মৃত্যুর ঘটনায় সিলেট মে‌ট্রোপ‌লিটন পু‌লিশের (এসএমপি) নতুন ক‌মিশনার নিশারুল আরিফ বলেছেন, সিলেটে রায়হান হত্যাকাণ্ডের ঘটনা অনভিপ্রেত, অপ্রত্যাশিত।  অপরাধী যে বাহিনীরই হোক না কেন সে অপরাধী।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিহত রায়হান আহমদের বাড়িতে তার পরিবারের সাথে আলাপ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পুলিশ কমিশনার।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, যেহেতু পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত একারণে আমি লজ্জিত। তবে এটি আমাদের কাছে ধর্তব্য কোন বিষয় নয়। আমাদের মূল টার্গেট আসামীদের গ্রেপ্তার করা।

তিনি যোগ করেন, সরকারের কঠোর নির্দেশনা আছে এ ঘটনায় সকলকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা। আমরা তাদের গ্রেপ্তারে সর্বাত্মক চেষ্টা করব। এই এসাইনমেন্ট নিয়েই আমি সিলেটে এসেছি।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ ক‌মিশনার নিশারুল আরিফ আরো বলেন, রায়হানের পরিবারের সদস্যদের সাথে আমি কথা বলেছি। তাদের দাবি মূল আসামীকে গ্রেপ্তার করা। পুলিশসহ সবগুলো বাহিনী এ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। জড়িত সকলকে আমরা গ্রেপ্তার করব। তাদের ব্যাপারে কোন তথ্য পেলে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বিমানযোগে তিনি সিলেট এসে পৌঁছান। সিলেটে এসে হজরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারত করে রায়হানের বাসায় যান পুলিশ কমিশনার নিশারুল আরিফ।

১১ অক্টোবর ভোররাতে পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতন করে রায়হানকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এরপর আকবরসহ চার পুলিশকে বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়। ঘটনার পর থেকে আকবর পলাতক। মামলাটি পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে তদন্ত করছে পিবিআই।