চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘রাব্বানীর ফোনালাপ ফাঁস উপাচার্যের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শাখা ছাত্রলীগের এক নেতার সাথে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর ফোনালাপ ফাঁসকে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র বলে মনে করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরা।

তারা বলছেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে সুযোগ হিসেবে নিয়ে উপাচার্যকে পদত্যাগে বাধ্য করে নিজেদের মতলব হাসিলের জন্য একটি গোষ্ঠী চক্রান্তে লিপ্ত। এ ফোনালাপের অডিও সেই চক্রান্তেরই অংশ।

বিজ্ঞাপন

সোমবার দুপুর দেড়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকগণের একাংশের সংগঠন ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ’ থেকে পাঠানো বিবৃতিতে এসব দাবি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ’র সভাপতি অধ্যাপক আবদুল মান্নান চৌধুরী ও সম্পাদক অধ্যাপক বশির আহমেদ স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, উপাচার্যকে দুর্নীতির জন্য দায়ী করতে সম্প্রতি ‘রাব্বানীর সঙ্গে জাবি ছাত্রলীগ নেতা কথোপকথনের অডিও ফাঁস’ শিরোনামে আরেকটি সংবাদ আলোচনায় এসেছে। যেকোনো যুক্তি-বুদ্ধি সম্পন্ন মানুষই বুঝতে সক্ষম, এ অডিও উদ্দেশ্য-প্রণোদিত-ভাবে কল্পিত কাহিনী দিয়ে তৈরি করা। সংবাদ সূত্রেও বিষয়টি স্পষ্ট।

ফোনালাপে জড়িত জাবি ছাত্রলীগের নেতার একটি গণমাধ্যমে দেয়া বক্তব্যের উদ্ধৃত দিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘তিনি (রাব্বানী) সেন্ট্রাল ছাত্রলীগের সেক্রেটারি ছিলেন। আমি তার রাজনীতি করতাম। সে যা বলতো, তাই করতাম। ওই গণমাধ্যমকে তিনি আরও বলেন, অনেক কথাই তার (রাব্বানী) সঙ্গে হয়েছে। সে সেন্ট্রাল সেক্রেটারি ছিলো। সে যে কাজ করতে বলতো, তাই করেছি। সে তো এখন সাবেক। আমি আসলে কোন কথার পরিপ্রেক্ষিতে এসব বলেছি মনে নেই। মনে করে জানাবো।’

বঙ্গবন্ধু পরিষদ মনে করে, এ স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর অন্যায় দাবি মেটাতে পারেন নি বলেই তারা উপাচার্যের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে পরিকল্পিতভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

বিবৃতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থে সকলকে সচেতন ও সজাগ থাকার অনুরোধের পাশাপাশি ষড়যন্ত্রকারীর বিপজ্জনক পথ পরিহার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে সহযোগিতার আহ্বান জানানো হয়।

Bellow Post-Green View