চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাজীব: বাংলা সিনেমার সফল খলনায়ক

ঢাকাই ছবির এক সময়ের দাপুটে অভিনেতা ওয়াসীমুল বারী রাজীব। ২০০৪ সালে মাত্র ৫২ বছর বয়সে এই অভিনেতা ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। শনিবার (১৪ নভেম্বর) প্রয়াত এই শক্তিমান অভিনেতার ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী। প্রায় দুই শতাধিক বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন গুণী এ অভিনেতা।

তবে খলনায়ক হিসেবে সফল হলেও অনেক চলচ্চিত্রে ইতিবাচক চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেতা হিসেবে রাজীব জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ছাড়াও অসংখ্য সম্মাননা লাভ করেন।

বিজ্ঞাপন

রাজীব অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবির মধ্যে রয়েছে হাঙর নদী গ্রেনেড, প্রেম পিয়াসী, সত্যের মৃত্যু নেই, স্বপ্নের পৃথিবী, আজকের সন্ত্রাসী, দুর্জয়, দেনমোহর, স্বপ্নের ঠিকানা, মহামিলন, বাবার আদেশ, বিক্ষোভ, অন্তরে অন্তরে, ডন, কেয়ামত থেকে কেয়ামত, ভাত দে, অনন্ত ভালোবাসা, রাজা শিকদার ও বুকের ভেতর আগুন, সাহসী মানুষ চাই, বিদ্রোহ চারিদিকে, দাঙ্গা প্রভৃতি।

তার প্রথম সিনেমা ‘রাখে আল্লাহ মারে কে’। তবে আলোচনায় আসেন কাজী হায়াতের হৃদয়স্পর্শী সিনেমা ‘খোকন সোনা’তে মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করে। রাজীবের ‘গুরু’ বলা হয় কাজী হায়াতকে। তার ক্যারিয়ারের শুরুটা ছিল ফ্লপ। রাজীবের শুরুটা ছিল নায়ক হিসেবে, কিন্তু সফল হয়েছিলেন খলনায়ক হিসেবে।

রাজীবের মৃত্যুবার্ষিকী শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান জানান, শিল্পী সমিতির সদস্য মরহুম অভিনেতা রাজীব সহ এই মাসে মৃত্যুবরণকারী শিল্পীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শনিবার বাদ আসর শিল্পী সমিতিতে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

১৯৫২ সালের ১ জানুয়ারি বাংলাদেশের অন্যতম সফল খলনায়ক রাজীব পটুয়াখালী জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। অভিনয়ের বাইরে তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএফডিসি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।