চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাজস্ব খাতে সংস্কারের পরামর্শ অর্থনীতিবিদদের

রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য পূরণ করার জন্য এ খাতে বড় ধরনের সংস্কারের পরামর্শ দিয়েছেন অর্থনীতিবিদ, গবেষক ও চেম্বার নেতারা। তারা বলছেন, সময় এসেছে রাজস্ব নীতি গ্রহণ ও রাজস্ব আদায়-এ দুটি কাজ আলাদা দুটি সংস্থার মাধ্যমে করার।

সোমবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের প্রতিক্রিয়া জানাতে আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স বা অ্যামচেম এক মধ্যাহ্ন ভোজসভার আয়োজন করে। ওই সভায় এ পরামর্শ দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম, গবেষণা সংস্থা পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক আহসান এইচ মনসুর ও ফরেন চেম্বারের সভাপতি শেহজাদ মুনিম। ভোজসভাটি সঞ্চালনা করেন অ্যামচেমের সভাপতি নুরুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

সভায় বক্তারা বলেন, বর্তমানে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) নিজেরাই নীতি প্রণয়ন করছে, আবার নিজেরাই রাজস্ব আদায়ের কাজ করছে। ফলে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য পূরণে তারা সহজ পথ বেছে নিচ্ছে। এতে করে বিদ্যমান করদাতার ওপর করের বোঝা বাড়ছে।

এ ছাড়া বক্তারা বেসরকারি ও বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধিকে অর্থনীতির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ বলে অভিহিত করেন।

সভায় বাজেটে টেলিযোগাযোগ খাতে শুল্ক ও কর বৃদ্ধি, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির রিটেইনড আর্নিংস বা রিজার্ভের ওপর করারোপ, ব্যাংক খাত থেকে সরকারের ঋণ গ্রহণের প্রবণতা বৃদ্ধি, প্রভাব মূল্যায়ন ছাড়া বিভিন্ন খাতে করারোপের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করা হয়।

Bellow Post-Green View