চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাজকীয় কায়দায় বিজ্ঞাপনের শুটিং

আলিশান কারবার। প্রথম নজরেই মনে হবে কোনো যেনো কোনো রাজ প্রাসাদ! একটু ভেতরে উঁকি দিলেই যেনো রাজদরবারের ফ্লেভার! জলমলে আলোর ঝলকানি। হরেক রমক বাতি। রাজকন্যা, উজির, সেনাপতি, প্রজারা দাঁড়িয়ে আছেন। তাদের পোশাকও ভিন্ন ভিন্ন। সবার নজর রাজকন্যার দিকে। এমন রাজকীয় কায়দায় বিজ্ঞাপনের শুটিং দেখা গেল রাজধানীর কোক স্টুডিওর চার নম্বর ফ্লোরে।

মূলত এটি আরএফএল টু কালার ফ্লাওয়ার বাকেট অ্যান্ড বোলের বিজ্ঞাপন। নির্মাণ করছেন এস এম সালাহউদ্দিন। বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন নোমিরা আহমেদ, যিনি ‘ভিট টপ মডেল চ্যানেল আই- ‘১১’র দ্বিতীয় রানারআপ। আরও আছেন সনি রহমান, আনন্দ খালেদ, সাথী, পাভেল, পলাশ, আখন্দ জাহিদসহ অনেকে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন প্রসঙ্গে নির্মাতা  এস এম সালাহউদ্দিন বলেন, একেবারে রাজকীয় ভাবে বিজ্ঞাপনটির শুটিং হচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে, পণ্যটির স্বতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্য এবং রাজকীয় ব্যাপার আছে, অন্যান্য বাকেট বা বোল থেকে একেবারে আলাদা এটা বোঝানোর জন্যই এই আয়োজন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপনের শুটিং স্পটে ছিলেন আফএলএল প্ল্যাস্টিকের হেড অব মার্কেটিং আরাফাতুর রহমান আরাফাত।চ্যানেল আই অনলাইনকে তিনি বলেন, এই বিজ্ঞাপনের মূল থিম হলো বিভিন্ন রঙের নতুন বাকেট ক্রেতাদের কাছে পরিচয় করতে যাচ্ছি। এটা নতুন ফ্লেভার থাকবে। যেখানে ২০ থেকে ২২ টি ফ্লাওয়ার থাকবে। যেখানে বাকেট, বোল আছে। এই সিরিজটি আমরা পরিচিত করা চাচ্ছি।

আগামী ঈদে আরএফএল টু কালার ফ্লাওয়ার বাকেট অ্যান্ড বোলের এই বিজ্ঞাপনটি প্রচারে আসবে। হোয়াইট ব্যালেন্স প্রোডাকশন হাউজের ব্যানারে নির্মিত এই বিজ্ঞাপনের সঙ্গে আছে রেড রকেট এজেন্সি। এই বিজ্ঞাপনে সহকারী পরিচালক হিসেবে আছেন মাকসুদুল হক ইমু। সেট জিডাইজন করেছেন জিয়া, রূপসজ্জায় রবিন আহমেদ এবং পোশাকে ছিলেন সৈয়দা শিলা।

বিজ্ঞাপন