চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাকিটিচকে বার্সা থেকে ‘মুক্ত’ করতে চায় অ্যাটলেটিকো

আর্নেস্টো ভালভার্দের দলে জায়গা হারিয়েছেন। তাই দুঃখ চেপে রাখতে পারেননি ইভান রাকিটিচ। মনের কষ্টে জানিয়েছিলেন, তার পা থেকে বল কেড়ে নিয়েছে বার্সেলোনা। ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডারকে এই দুঃখ থেকে মুক্তি দিতে এগিয়ে এসেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। স্প্যানিশ মিডিয়াতে দাবি, বার্সার পছন্দানুযায়ী দামেই রাকিটিচকে কিনতে চায় মাদ্রিদের ক্লাবটি।

মৌসুমের শুরুতে নেইমারের বদলে রাকিটিচকে পিএসজির সঙ্গে অদলবদল করতে চেয়েছিল বার্সা। ক্রোয়েট মিডফিল্ডার রাজীও হয়েছিলেন যেতে। কিন্তু শেষপর্যন্ত সবকিছু ভেস্তে যায়।

বিজ্ঞাপন

এরপরই কপাল পোড়ে রাকিটিচের। আস্তে আস্তে তাকে মূল একাদশ থেকে সরিয়ে রাখা শুরু করেন ভালভার্দে। একটা সময় জায়গা হারান বদলি খেলোয়াড় হিসেবেও। চলতি মৌসুমের বেশিরভাগ সময় হয় বদলি খেলোয়াড়, নয়তো ডাগআউটে কেটেছে ৩২ বছর বয়সী মিডফিল্ডারের। তার জায়গায় ভালভার্দের পছন্দ মৌসুমের শুরুতে আয়াক্স থেকে বার্সায় আসা তরুণ মিডফিল্ডার ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং।

বিজ্ঞাপন

অথচ গত মৌসুমেও বার্সার মূল একাদশে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় ছিলেন রাকিটিচ। ২০১৪ সালে সেভিয়া থেকে বার্সায় আসার পর হয়ে ওঠেন দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। ২০১৫ সালে জিতেছেন ট্রেবলও। কিন্তু চলতি মৌসুমে সেই রাকিটিচকে দলে রাখতেই যেন নারাজ ভালভার্দে!

নিজের এমন অবস্থায় হতাশা লুকাতে পারেননি রাকিটিচ। এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘আমি খুব কষ্টে আছি, কারণ আমার পা থেকে ওরা বল কেড়ে নিচ্ছে।’

এরপরই মুভিস্টারের এক অনুষ্ঠানে উপস্থাপিকা সুসানা গুয়াসচ দাবি করেছেন রাকিটিচকে পেতে চেষ্টা চালাচ্ছে অ্যাটলেটিকো। সব ঠিক থাকলে আগামী শীতের দলবদলে তাকে টানতে চায় রোজাব্লাঙ্কোরা। দলে থমাস, সাউল, কোকে, আন্দ্রে হেরেরার মতো অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার থাকা সত্ত্বেও তারা দলে চায় রাকিটিচকে।

এজন্য বার্সার দাবীকৃত ৪০ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধে রাজী অ্যাটলেটিকো। এমনকি বছরে যে বার্সায় ৬.৫ মিলিয়ন ইউরো বেতন পান রাকিটিচ, সে বিষয়টিও মাথায় রেখেছে ক্লাবটি।

Bellow Post-Green View