চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যে কারণে নির্মাণের পথে অভিনেতা শিমুল খান

যোগ্যতা, ধৈর্য্য এবং তুমুল চেষ্টা দিয়েই এই অবস্থায় এসে পৌঁছাতে হয়েছে: শিমুল

ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত সুপারহিট হিট সিনেমা ‘দেহরক্ষী’ দিয়ে ২০১৩ সালে ঢাকাই চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন অভিনেতা শিমুল খান। এরপর টানা বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করে পরিচিত পান। বিশেষত খল-অভিনেতা হিসেবে আলাদা অবস্থান তৈরী করেন তিনি।

বেশকিছু দিন ধরে খবরে নেই এই অভিনেতা। নতুন কোনো চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন, তেমনটাও শোনা যাচ্ছিলো না। তবে কি সিনেমা ছাড়লেন? না, এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর আগেই নতুন সংবাদ নিয়ে হাজির শিমুল খান!

জানালেন, পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতেই কিছুদিন নিভৃতে ছিলেন এই অভিনেতা। ঘোষণা দিলেন, ‘সাদা মনোলিথ: The White Monolith’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে যাচ্ছেন তিনি। এরমধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবেন।

১১ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘মীর শহীদ পিকচার্স’ এর সাথে চলচ্চিত্রটির লেখক এবং নির্মাতা হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিবদ্ধও হয়েছেন শিমুল খান। এসময় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী মীর শহীদ এবং সিনেমাটির নির্বাহী প্রযোজক এটিএম রাকিবুল বাসার উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

অভিনয় রেখে চলচ্চিত্র নির্মাণে কেন শিমুল? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আসলে বহু আগেই লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিলাম যে একদিন অভিনয়ের পাশাপাশি চলচ্চিত্র নির্মাণ করবো। ভেবেছিলাম অভিনেতা হিসেবে আরো একটু সিনিয়র হবার পর চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু করবো। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি আর সবার মতো আমার জীবনের গতিপথও দ্রুত পাল্টে দিয়েছে। তাই সময় নষ্ট না করে শুরু করে দিলাম।’

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘মীর শহীদ পিকচার্স’ এর সাথে সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হন শিমুল খান

শিমুল বলেন, বাঁচবোইবা কয়দিন! নিজের লেখা কিছু বাস্তবভিত্তিক গল্পে একজীবনে কয়েকটি কালজয়ী চলচ্চিত্র নির্মাণ করে মরতে চাই। তবে চলচ্চিত্র নির্মাণ ভাবনার শুরু থেকে নির্মাতা হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হবার এই সময়কালটা আমার জন্য সত্যিই মারাত্মক চ্যালেঞ্জিং ছিলো। এতো সহজে সবকিছু হয়ে যায়নি। গত দুই বছর যাবত নিরবে আমাকে আমার যোগ্যতা, ধৈর্য্য এবং তুমুল চেষ্টা দিয়েই এই অবস্থায় এসে পৌঁছাতে হয়েছে।

সিনেমাটি নির্মাণের পর বিশ্বের বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে জমা দিতে চান নির্মাতা। সেই লক্ষ্যে এই ছবিটির আন্তর্জাতিক পরিবেশক হিসেবে আমেরিকার চলচ্চিত্র প্রযোজনা-পরিবেশনা প্রতিষ্ঠান মাংকি ফিল্মস আইএনসিকে যুক্ত করা হয়েছে বলে জানান শিমুল।

বঙ্গোপসাগরের একটি নির্জন দ্বীপে আগামী মার্চ মাসের ১ তারিখ থেকে একটানা শুটিং করতে চান শিমুল। সিনেমাটিতে কারা অভিনয় করবেন সে বিষয়ে নির্মাতা কিছু বলতে না চাইলেও তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন বর্তমান ঢাকাই চলচ্চিত্রের শীর্ষ জনপ্রিয় একজন নায়িকার সাথে থিয়েটার এবং টেলিভিশনের প্রখ্যাত একজন অভিনেতার মেলবন্ধন ঘটাতে চান।

বিজ্ঞাপন