চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মৃত ব্যক্তির দান করা জরায়ু নিয়ে সন্তান জন্ম

মৃত ব্যক্তির দান করা জরায়ু নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কোনো নারীর সন্তান জন্মদানের ঘটনা ঘটেছে। গত জুনে যুক্তরাষ্ট্রের ক্লেভেল্যান্ড ক্লিনিকে কোন ধরনের জটিলতা ছাড়াই সুস্থ সন্তান জন্ম দেন ওই নারী।

এই ঘটনা জরায়ুর সমস্যায় ভোগা নারীদের সন্তান জন্মদানের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি বলে মৃত নারীর জরায়ু প্রতিস্থাপন করে সন্তান প্রসবের প্রক্রিয়ায় নিয়োজিত গবেষকদল জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সিএনএন জানায়, ক্লেভেল্যান্ড ক্লিনিকেই নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ৩০ বছরের ওই নারীর জরায়ু প্রতিস্থাপন থেকে শুরু করে সন্তান জন্ম দেয়ার পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

বিজ্ঞাপন

প্রতিস্থাপন দলের সদস্য ডা. টমাসো ফ্যালকন বলেন, ওই নারী জরায়ু ছাড়াই জন্মগ্রহণ করেন। তিনি জরায়ু সংক্রান্ত বন্ধ্যাত্বজনিত সমস্যা নিয়ে ক্লিনিকে আসেন। অক্ষত জরায়ু ছাড়া জন্ম বা অস্ত্রপচারের কারণে নারীদের এ ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে।

তিনি বলেন, সন্তান জন্মের পর ওই নারীর জরায়ু ফেলে দেয়া হবে এমন শর্তেই জরায়ু প্রতিস্থাপন করা হয়। এখানেই একটি প্রশ্নের জায়গা থেকে যায়। এ বিষয়ে বিস্তারিত গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে। তবে এই ধারণা চমকপ্রদ ছিল যে, একজন মৃত নারী তার জরায়ু দান করতে পারেন এবং তা বিস্ময়করভাবে ভাল কাজ করবে।

এরপরই ওই নারীর জরায়ু প্রতিস্থাপন থেকে শুরু করে গর্ভধারণের প্রক্রিয়া শুরু হয়। এসময়ে বিভিন্ন ধাপে তার পর্যবেক্ষণ এবং চিকিৎসা চলে। জরায়ু প্রতিস্থাপন থেকে সিজারের মাধ্যমে সন্তান জন্ম দেয়া পর্যন্ত সাতটি ধাপ পার হতে হয়। এজন্য ১৫ মাস সময় লাগে।

তবে যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের ঘটনা প্রথম হলেও বিশ্বে এটি দ্বিতীয়। এর আগে ২০১৭ সালে ব্রাজিলে প্রথম কোন নারীর ক্ষেত্রে এমন হয়। জরায়ু ছাড়া জন্ম নেয়া ৩২ বছর বয়সী ওই নারীর শরীরে ৪৫ বছর বয়সী এক মৃত নারীর দান করা জরায়ু প্রতিস্থাপন করা হয়।