চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মাহির সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুললেন স্বামী

মাহিয়া মাহি তার পাঁচ বছরের সংসারে ভাঙ্গনের ইঙ্গিত দিয়েছেন এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে। সে সূত্র ধরেই কথা হয় তার স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে।

চ্যানেল আই অনলাইনকে অপু জানিয়েছেন, মাহির সঙ্গে বিচ্ছেদ হচ্ছে। তিনি বলেন, এখনো তারা স্বামী স্ত্রী। আইনিভাবে ছাড়াছাড়ি হয়নি। তবে শিগগির আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

রোববার বিকেলে মুঠোফোনে পারভেজ মাহমুদ অপু বলেন, পরিষ্কার করে বলছি ‘আমরা একসঙ্গে আর থাকতে পারছি না। দুজনের কিছু জায়গায় মিলছে না। মতের অমিল হচ্ছে, এজন্য একসঙ্গে থাকা সম্ভব হচ্ছে না। সেজন্য আমরা আলাদা হয়ে যাচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন

তবে মাহিয়া মাহির সঙ্গে সম্পর্ক এখনো ভালো আছে স্পষ্ট জানান স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপু। তার কথা, ‘আমরা আলাদা থাকিনি। একসঙ্গে যাওয়া আসা, কথা আছে। রোজার সময় আমাকে নিয়ে সে ফেসবুকে ছবিও পোস্ট করেছে। তবে আমরা আলাদা হয়ে যাচ্ছি। পরিবার জানিয়েছে, সংসার যেহেতু আমাদের, সিদ্ধান্তটাও যেন আমরাই নিই। তাই একসঙ্গে থাকা বা না থাকার সিদ্ধান্ত আমার।’

“তাই আল্টিমেট সিদ্ধান্ত মাহির সঙ্গে আমার ছাড়াছাড়ি হয়ে যাচ্ছে” বলে জানান মাহির স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপু।

মাহির সংসার ভাঙ্গনেরগুঞ্জন অনেক দিনের। তবে সবসময় তিনি বলেছেন, দাম্পত্যজীবনে সুখে আছেন। শনিবার মধ্যরাতে মাহি অবশ্য ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে লিখেছেন: এই পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো মানুষটার সাথে থাকতে না পারাটা অনেক বড় ব্যর্থতা। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শ্বশুর বাড়ির মানুষগুলোকে আর কাছ থেকে না দেখতে পাওয়াটা, বাবার মুখ থেকে মা জননী, বড় বাবার মুখ থেকে সুনামাই শোনার অধিকার হারিয়ে ফেলাটা সবচেয়ে বড় অপারগতা। আমাকে মাফ করে দিও। তোমরা ভালো থেকো। আমি তোমাদের আজীবন মিস করবো।

২০১৬ সালের ২৪ মে মাহিয়া মাহির বিয়ে হয় সিলেটের মাহমুদ পারভেজ অপুর সঙ্গে।

বিজ্ঞাপন