চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ বলিউডশিল্পীর

দুই বছর প্রেম করে ৬ মাস আগে বিয়ের গাটছড়া বেধেছিলেন বলিউডশিল্পী মানদানা কারিমি। স্বামী গৌরব গুপ্তা মুম্বাইয়ের বড় ব্যবসায়ী। ভালোই চলছিল এই দম্পতির জীবন। কিন্তু হঠাৎ ঘরের ভেতরের কাহিনী সামনে চলে এলো যখন মানদানা তার স্বামীর বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতনের অভিযোগ তোলেন।

আন্ধেরি ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে গত সোমবার মানদানা একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেখানে তিনি বলেন, তার শ্বশুরবাড়ির মানুষ তাকে ৭ সপ্তাহ আগে জোরপূর্বক বাবার বাড়ি ফেরত পাঠিয়ে দেয়। অনেক মানসিক অত্যাচারের পরে গৌরব এখন তার তার সঙ্গে সম্পর্ক রাখতে চায় না। তাই তিনি এখন গৌরবের থেকে প্রতি মাসে হাত খরচ হিসেবে ১০ লাখ রুপি চাইছেন এবং মানসিক চাপ এবং ক্যারিয়ারের ক্ষতিপূরণের জন্য দুই কোটি রুপি দাবি করেছেন।

বিজ্ঞাপন

মানদানা কারিমি আরও অভিযোগ করেন, গৌরবের পরিবার বিয়ের পর তাকে অভিনয় এবং মডেলিং ছাড়তে বাধ্য করেছে। এমনকি জোরপূর্বক ধর্মত্যাগও করিয়েছে তারা। শ্বশুরবাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে ফিরে আসার পরও গৌরবের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছেন মানদানা। কিন্তু শ্বশুরবাড়ির মানুষেরা গৌরবের সঙ্গে কথাও বলতে দেয়নি তাকে।

‘বিগ বস ৯’– এর মাধ্যমে বলিউডে পরিচিতি পান ইরানের মডেল মানদানা কারিমি। এরপর শাহরুখ খান, রণবীর কাপুর এবং কারিনা কাপুরের সঙ্গে কয়েকটি বিজ্ঞাপনের কাজ করেছেন তিনি। এরপর তিনি ‘রয়’, ‘কেয়া কুল হ্যায় হাম’ এবং ‘ম্যায় ঔর চার্লিজ’ ছবিতে অভিনয় করেন। বিয়ের পর তিনি মডেলিং এবং অভিনয় থেকে পুরোপুরি বিরতিতে ছিলেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া।