চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘মডার্ন টাইমস’ নিয়ে ‘ভাই ব্রাদার্স এক্সপ্রেস’-এ নবীন ও আদনান

ঈদের রাত ৯টা ৩৫ মিনিটে চ্যানেল আইয়ে দেখবেন ক্লোজ-আপ নিবেদিত ‘ভাই ব্রাদার এক্সপ্রেস’-এর ‘মডার্ন টাইমস’

‘মডার্ন টাইমস’-এই শহরের গল্প। এই সময়ের গল্প। এই পৃথিবীর গল্প। যেখানে প্রধান চরিত্র এক প্র‌্যাকটিকেল তরুণ। ইমোশনের চেয়ে বাস্তবতা যার কাছে বেশি গ্রাহ্য। ডেট নিয়ে আলাপ করার চেয়ে যার কাছে ডেট করাটা বেশি ইন্টারেস্টিং। যার কাছে নিজের মায়ের ডিভোর্স হওয়াটা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। কারণ এরইমধ্যে বহু প্রেমিকার সাথে তার ব্রেকাপ হয়েছে! এমন তরুণকে স্বভাবতই এই সমাজ ‘বখে যাওয়া’ বলেই ট্রিট করে। কিন্তু চরিত্রটির মতো এমন তরুণের অস্তিত্বকে কি অস্বীকার করা যায়? সমাজে কি এমন চরিত্র নেই? বাস্তবতা আর আবেগের এমন দ্বান্দ্বিক সময়ে একটি টাটকা চরিত্র নিয়ে গল্প ফাঁদছেন দুই তরুণ নির্মাতা!

ধোঁয়াশা না রেখে খুলে বলায় ভালো। চ্যানেল আইয়ের পর্দায় ঈদের মস্ত ধামাকা নিয়ে হাজির হতে চলেছেন মেধাবী নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। ‘ভাই ব্রাদার এক্সপ্রেস’ নামের একটি প্রজেক্ট নিয়ে হাজির হচ্ছেন। ঈদের দিন থেকে টানা সাত দিন। ছবিয়ালের পুরনো ও নতুন নির্মাতাদের নিয়ে। ভিন্ন গল্পের ৭টি নাটক থাকছে চ্যানেল আইয়ের পর্দায়। নাটকগুলো নির্মাণ করেছেন জনপ্রিয় নির্মাতা মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী এবং ভাই ব্রাদার্স এক্সপ্রেসের নাট্য নির্মাতারা। আর এই প্রকল্পেরই একটি নাটকের নাম ‘মডার্ন টাইমস’। যে নাটকটি যৌথভাবে নির্মাণ করেছেন মাহমুদুল হাসান আদনান ও নাজমুল নবীন। চল্লিশের দশকে মহান নির্মাতা ও অভিনেতা চার্লি চ্যাপলিন নির্মাণ করেছিলেন ‘মডার্ন টাইমস’ নামের একটি সিনেমা। এই নামেই কেন নাটক নির্মাণ করছেন?-এমন প্রশ্নে তরুণ নির্মাতা নাজমুল নবীন বলেন, ‘মডার্ন টাইমস’ দিয়ে মূলত এই সময়টাকে দেখানোর ইঙ্গিত দিয়েছি। চ্যাপলিনের ‘মডার্ন টাইমস’-এর সাথে এর কোনো যোগসূত্র নেই। এই নাটকে আমরা এই সময়ের ডিলেমাগুলো দেখানোর চেষ্টা করেছি।

সম্প্রতি ‘মডার্ন টাইমস’ নাটকটির প্রমোশনাল একটি ভিডিও দেখা গেছে চ্যানেল আইয়ের ফেসবুকে। এরইমধ্যে এর গল্প, ডায়ালগ নিয়ে কেউ কেউ কথা বলছেন। নাটকে আপনারা কোন সমাজের গল্প বলতে চাইছেন?-জানতে চাইলে নবীন বলেন, এই গল্পের আইডিয়াটা কিন্তু সরয়ার ভাইয়ের(মোস্তফা সরয়ার ফারুকী)। আমরা যখন চ্যানেল আইয়ের ‘ভাই-ব্রাদার এক্সপ্রেস’ শুরু করি, তখন কে কোন গল্প নিয়ে কাজ করবে এটা নিয়ে সরয়ার ভাই আমাদের নিয়ে বসেন। এমনই এক আড্ডায় তিনি এই গল্পের আইডিয়াটা আমাদেরকে দেন। ‘মডার্ন টাইমস’ ব্যাসিকেলি এই সময়ের গল্প। যে চরিত্রটি আমরা ‘মডার্ন টাইমস’-এ দেখাচ্ছি সেই চরিত্রটি এই সমাজেই বিরাজ করে।

প্র‌্যাকটিকেল ও ইমোশনাল জায়গাগুলোকে স্পর্শ করবে নাটকটি। শুধু তাই নয়, এই সময়ে যাদেরকে আমরা ইমোশনলেস প্রজন্ম বলি তারা কিন্তু নিজেদেরকে প্র‌্যাকটিকেল ভাবছে। দুই পক্ষেরই পয়েন্ট অব ভিউ নাটকটিতে আসবে বলে মনে করছেন এই তরুণ নির্মাতা।

বিজ্ঞাপন

দুই তরুণ নির্মাতা নাজমুল নবীন ও মাহমুদুল হাসান আদনান

জীবনের প্রথম নাটক নির্মাণ, তাও যৌথ পরিচালনা! কেমন অভিজ্ঞতা হলো?-জানতে চাইলে নবীন বলেন, আমার ও আদনানের প্রথম নাটক এটা। এরআগে আমরা আলাদা আলাদা দুজনেই বিজ্ঞাপন করেছি। কিন্তু নাটকের অভিজ্ঞতা আমাদের এটাই প্রথম। নাটকের গল্প, শুটিং থেকে শুরু করে সবকিছু আমরা একসাথে করেছি। দুজনের ভাবনা একসঙ্গে শেয়ার করে যা বেস্ট মনে হয়েছে সেটাই আমরা নাটকে অ্যাপ্লাই করেছি। দুজন হওয়াতে শেয়ারিংয়ের একটা ভালো স্পেস পেয়েছি। চ্যানেল আইয়ের পর্দায় ঈদের দিন রাত ৯টা ৩৫ মিনিটে ক্লোজ-আপ নিবেদিত ‘মডার্ন টাইমস’ দেখে দর্শক কেমন প্রতিক্রিয়া দেয় সেদিকে তাকিয়ে আছি।

‘মডার্ন টাইমস’-এর মধ্য দিয়ে গল্প বলার ক্ষুধা তৈরি হয়েছে জানিয়ে এই নির্মাতা বলেন, আমি সরয়ার ভাইয়ের ছবিয়ালে আছি সেই ২০১০ সাল থেকে। তার সাথে টেলিভিশন ও পিঁপড়াবিদ্যা ছবিতে অ্যাসিস্টেন্ট হিসেবে ছিলাম। এরপর বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপন তৈরি করেছি। বিজ্ঞাপনেতো এতো বড় গল্প দেখানোর সুযোগ নেই। কিন্তু ‘মডার্ন টাইমস’ বানিয়ে যা হয়েছে সেটা হলো গল্পটা বলতে পেরে অদ্ভুত একটা সুখ পাইছি। আমি মনে হয় আরো বহু গল্প বলতে চাই, ভিন্ন ভিন্ন ধরনের গল্প বলতে চাই। এই নাটক বানিয়ে গল্প বলার একটা ক্ষুধা তৈরি হয়ে গেছে।

ক্লোজ-আপ নিবেদিত ঈদের রাত ৯টা ৩৫ মিনিটে চ্যানেল আইয়ের পর্দায় দেখা যাবে ‘মডার্ন টাইমস’ নাটকটি। যেখানে গুরুত্বপূর্ণ তিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কল্প, মিথিলা ও সাবিলা নূর।

বিজ্ঞাপন