চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভাষার মাস: বাংলা অভিধান কতটুকু সমৃদ্ধ

বাংলা ভাষাকে আরো গতিশীল ও শক্তিশালী করে তুলতে অভিধানে নিয়মিত নতুন শব্দ যুক্ত করা হয়, বলছে বাংলা একাডেমি।

একাডেমির মহাপিরচালক বলেছেন, অভিধান নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সাধারণ জনগণের মতামত প্রকাশ করার সুযোগ রয়েছে। আর ভাষাসংগ্রামী জাতীয় অধ্যাপক ডক্টর রফিকুল ইসলাম বলেছেন, আধুনিক বাংলা অভিধান হওয়ার পরও মানুষের মধ্যে আঞ্চলিক ভাষা মেশানোর প্রবণতা এখনও বেশি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

১৮১৭ সালে বাংলা ভাষায় প্রথম অভিধান প্রণয়ন ও সংকলন করেন রামচন্দ্র বিদ্যাবাগীশ। তার ঠিক শত বছর পর জ্ঞানেন্দ্রমোহন দাস ১৯১৭ সালে প্রায় ৭৫ হাজার শব্দের ‘বাংলা ভাষার অভিধান’ নামে একটি বই সংকলন করেন। এতে ২০ বছর পর প্রায় এক লাখ ১৫ হাজার শব্দ যোগ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এরপর বাংলা একাডেমিতে ১৯৬১ সালে প্রথম সংকলনের কাজ করেন ডক্টর মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, মুনীর চৌধুরী, অজিত কুমার গুহ এবং আহমদ শরীফ। ১৯৯২ সালে অখ- পূর্ণাঙ্গ সংস্করণ হিসেবে বাংলা একাডেমির ব্যবহারিক ‘বাংলা অভিধান’ প্রকাশ হয়। ২০০০ সালে পরিমার্জিত সংস্করণে আরো প্রায় ৭৫ হাজার শব্দ যোগ করা হয়। পরে বাংলা একাডেমি বড় পরিসরে প্রকাশ করেছে ‘বিবর্তনমূলক বাংলা অভিধান’

ভাষা সমৃদ্ধ করার জন্য নানা সময়ে ৪২টি অভিধান তৈরি করেছে বাংলা একাডেমি। প্রতিষ্ঠানের মহাপরিচালক বলেন, বাংলা একাডেমিকেই বাংলা অভিধান সমৃদ্ধ করার দায়িত্ব পালন করতে হয়।

আরও বিস্তারিত দেখুন জাকিয়া আক্তারের ভিডিও রিপোর্টে: 

বিজ্ঞাপন