চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারত যেমন বন্ধুত্ব জানে, শত্রুদের জবাব দিতেও জানে: নরেন্দ্র মোদি

লাদাখে যাদের নজর পড়েছিলো তাদেরকে যোগ্য জবাব দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রোববার জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে নরেন্দ্র মোদি দাবি করেন, ভারত যেমন বন্ধুত্ব জানে, তেমন শত্রুদের জবাব দিতে জানে। আমাদের সাহসী জওয়ানরা নিশ্চিত করেছে, মাতৃভূমিকে আক্রমণে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। আমাদের সাহসী জওয়ানদের কাছে আমরা মাথা নত করি। এরাই [...]

লাদাখে যাদের নজর পড়েছিলো তাদেরকে যোগ্য জবাব দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রোববার জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে নরেন্দ্র মোদি দাবি করেন, ভারত যেমন বন্ধুত্ব জানে, তেমন শত্রুদের জবাব দিতে জানে। আমাদের সাহসী জওয়ানরা নিশ্চিত করেছে, মাতৃভূমিকে আক্রমণে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। আমাদের সাহসী জওয়ানদের কাছে আমরা মাথা নত করি। এরাই দেশকে নিরাপদে রেখেছেন। তাদের আত্মত্যাগ সবসময় স্মরণ করবে দেশ।

তিনি আরও বলেন, দেশের মানুষ যে হারে চীনা পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছে, তার প্রভাব সে দেশের অর্থনীতিতেও পড়বে।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পাশাপাশি চীনে দায়িত্বরত ভারতের রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিশ্রিও লাদাখে চীনের কর্মকাণ্ড নিয়ে হুশিয়ারি দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

বিক্রম মিশ্রি বলেছেন, গালাওয়ান উপত্যকায় যদি এখনো চীন কোনো অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করে তবে তার যোগ্য জবাব দেওয়া হবে। ভারত-চীন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কেও এর প্রভাব পড়বে বলে সতর্ক করেন তিনি।

ভারতের দাবি, পূর্ব লাদাখে চীনা সেনার দাপাদাপি বন্ধ করুক বেজিং। গালওয়ান উপত্যকার উপর চীনের সার্বভৌমত্বের দাবি মোটেই যুক্তিযুক্ত নয়।

ভারতের কাছ থেকে এমন সময় প্রতিক্রিয়া এসেছে যখন লাদাখ সীমান্তের বিতর্কিত এলাকায় চীন সেনাদের সরব উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম বলছে, উপগ্রহ চিত্রে দেখা যাচ্ছে যে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে গালওয়ান নদীর ভারতীয় এলাকায় নির্মাণ জারি রেখেছে চীনের সেনারা।

শেয়ার করুন: