চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতের কোভ্যাক্সিনের কার্যকারিতা নিয়ে ভারতেই উদ্বেগ প্রকাশ

কোভ্যাক্সিন চূড়ান্ত অনুমোদনের পর স্থানীয়ভাবে উৎপাদন ও কার্যকারিতা বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারতের ভ্যাকসিন বিশেষজ্ঞরা।

রোববার দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির সাথে বানানো অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন এবং ভারত বায়োটেকের তৈরি ভ্যাকসিন কোভ্যাক্সিনের চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়। দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞান গবেষণা সংস্থা আইসিএমআরের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে ভারত বায়োটেক এই ভ্যাকসিনটি তৈরি করেছে।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য নজরদারি সংস্থা অল ইন্ডিয়া ড্রাগ অ্যাকশন নেটওয়ার্ক থেকে বলা হয়েছে, ভ্যাকসিন প্রয়োগে কার্যকারিতা ডেটার তীব্র অভাব নিয়ে তারা উদ্বেগ প্রকাশ করছেন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং সংক্রমণের সঠিক তথ্য না থাকলে বৈজ্ঞানিক সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সংস্থাগুলির প্রতি বিশ্বাস ভঙ্গ হতে পারে।

তবে ভারতের ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল ভিজি সোমানি জোর দিয়ে বলেছেন, ভারতের তৈরি কোভ্যাক্সিন টিকা মানুষের জন্য নিরাপদ এবং এটি প্রয়োগে মানুষের দেহে শক্তিশালী ইমিউন তৈরি হবে।

আর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভ্যাকসিন আবিষ্কারকে ভারতের জন্য একটি ‘গেম চেঞ্জার’ বলে আখ্যা দিয়েছেন, এদিকে বিশেষজ্ঞরা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ভারতের জন্য ভ্যাকসিন তৈরি অনেক দ্রুত সময়ের মধ্যেই হয়েছে।

এই বছরে ৩০ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা আছে ভারতের।

করোনাভাইরাসে বিশ্বে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্ত শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ভারতে। সেখানে এরই মধ্যে আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ৩০ লাখের বেশি মানুষ আর প্রাণ হারিয়েছে দেড় লাখের বেশি।

বিজ্ঞাপন