চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতের পর বাংলাদেশকে চায় শ্রীলঙ্কা

জুনের শেষনাগাদ ভারতের পর জুলাইয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে ঘরের মাঠে নামতে চায় শ্রীলঙ্কা। এফটিপির নির্ধারিত সূচিতে টাইগারদের বিপক্ষে তিন টেস্ট খেলার কথা লঙ্কানদের, যা আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, করোনা পরিস্থিতিতে লাগাম টেনে রাখা শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি) সিরিজ দুটির আয়োজন চায় নির্ধারিত সময়েই। ভারত ও বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে এখনও যদিও লঙ্কান বোর্ডের আগ্রহের ব্যাপারে পাকা কোনো উত্তর দেয়া হয়নি। তবে দেশটি আশাবাদী বলে জানিয়েছে গণমাধ্যমকে।

বিজ্ঞাপন

এই মুহূর্তে শ্রীলঙ্কায় কোভিড-১৯ সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা পাঁচশরও নিচে। লকডাউন শিথিল করা হচ্ছে দেশটিতে। যদিও আকাশপথ বন্ধ আছে, এমনকি বাংলাদেশ ও ভারতেও তা বন্ধ। তাই সিরিজ আয়োজনের ইচ্ছায় সফরকারী দুদেশের সরকারের অনুমতির ব্যাপারও থাকবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ভারতকে জুলাইয়ে দর্শকহীনভাবে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি খেলার প্রস্তাব দিয়েছে শ্রীলঙ্কা। বিসিসিআই বলছে, সরকার অনুমতি দিলে সীমিত ওভারের সিরিজ দুটি খেলতে যাবেন কোহলি-রোহিতরা। তবে সব সিদ্ধান্ত এখন সরকারের হাতে, কথাটি বোর্ডটির ট্রেজারার অরুণ ধামালের।

‘এই সিরিজ এখন নির্ভর করছে সরকার লকডাউন শিথিল করে ও ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা কমিয়ে আনে কিনা তার উপর। যদি স্বাস্থ্য নিরাপত্তার উপর কোনো ঝুঁকি না থাকে তবে ছেলেরা সিরিজ খেলতে যাবে।’

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরীও ক্রিকইনফোর কাছে বলেছেন সরকারের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কথাই, ‘ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা, দুই দেশের কোয়ারেন্টাইন বিধি, এসব বিষয় আলোচনায় আছে। সঙ্গে ক্রিকেটারের প্রস্তুতি, সফরের অন্য দিকগুলো তো আছেই।’

বর্তমানে কোনো মিডিয়া পার্টনার নেই শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের। এমন অবস্থায় ভারতকে নিজ মাটিতে এনে সিরিজ আয়োজন করতে পারলে বিশাল লাভজনক হবে মনে করছে লঙ্কানরা। সেই সিরিজ আয়োজনে আগ্রহ আছে অনেক সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানেরও। সেজন্য ক্রিকেট ফেরাতে মরিয়া দেশটি।