চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ব্রাজিলকে টপকে দ্বিতীয়তে ভারত, একদিনেই করোনা শনাক্ত ৯২ হাজার

বিশ্বে মোট করোনা সংক্রমণ সংখ্যায় ব্রাজিলকে টপকে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে ভারত। একদিনেই সেখানে শনাক্ত ৯২ হাজার। প্রতিদিনই আক্রান্তের রেকর্ড তৈরি হচ্ছে দেশটিতে। পাশাপাশি বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যাও। শুধু গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৮ জন। যা সোমবার সকাল পর্যন্ত সর্বোচ্চ।

পরিসংখ্যান বলছে, এ নিয়ে ভারতে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৭১ হাজার ৬৮৭ জনে। আর দেশটিতে ৪২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। এরমধ্যেই ভারতে আগামী সপ্তাহ থেকে চালু হচ্ছে মেট্রো রেল যা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা যায়, সপ্তাহ খানেক আগেই যেখানে দৈনিক সংক্রমণ ৫০-৬০ হাজারের ঘরে থাকছিল৷ তবে গত সপ্তাহেই ৭০ হাজারের ঘর পেরোয়। আপাতত সেদেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ৬২ হাজার ৩২০ জন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মহারাষ্ট্রে কোভিড -১৯ এর ২১,৮০১ জন সংক্রমিত হয়েছেন৷ যা একদিনেই সর্বোচ্চ সংখ্যা। সে রাজ্যে মোট সংখ্যা ৯,৮৩,৮৬২ এ দাঁড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭,২৭৬। রাজ্যে টানা চতুর্থ দিন সর্বাধিক সংখ্যর সংক্রমণ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মহারাষ্ট্রে বর্তমানে মোট ২,৩০,৬২০ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা চলছে।

দিল্লিতে করোনার ভাইরাস সংক্রমণ হয়েছে ২,৯৭৩ জনের৷ যা গত ৭১ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর মাধ্যমে, দিল্লী শহরে সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েছে ১.৮৮ লাখেরও বেশি এবং কোভিড -১৯ থেকে মারা যাওয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪,৫৩৩। দিল্লীর স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৪ জন করোনা রোগী মারা গিয়েছিলেন। এখন দিল্লীতে কোভিড-১৯এ ৪,৫৩৩ জন রোগী মারা গিয়েছেন এবং সংক্রমণের মোট সংখ্যা ১,৮৮,১৯৩।

বিহারে নতুন করে করোনার ভাইরাসে ১৭২৭জন সংক্রমিত৷ আরও নয় জন রোগী মারা গিয়েছেন। রাজ্যে সংক্রমণের মোট সংখ্যা এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,৪৫,৮৬০ এবং মৃতের সংখ্যা ৭৫০-এ পৌঁছেছে।

কোভিড -১৯ এর ১৯৬৫ জন রোগী গত ২৪ ঘণ্টায় সেরে উঠেছেন। রাজ্যে এখন পর্যন্ত ১,২৮,৩৭৬ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। পাটনা, ভাগলপুর ও মুঙ্গারে ৬ এবং লক্ষীসরাই, সাহারসা ও পূর্ব চম্পরণ জেলায় করোনা রোগীর মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে।