চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বের ১৪ দেশের চেয়েও বেশি কামাই রিয়াল-বার্সার

সামোয়া, সলোমন আইল্যান্ড, টোঙ্গা নামের দেশগুলো মোটামুটি পরিচিত হলেও পালাউ, টুবালু, কিরিবাতির মতো কিছু দেশ যে আছে সেটা হয়ত অনেকেরই অজানা! মজার বিষয় হচ্ছে, এরকম ১৪টি দেশের বার্ষিক যা কামাই তার ঢের বেশি রোজগার করে এল ক্ল্যাসিকোতে খেলা দুদল রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা! ডেলোইত্তে নামের এক হিসাবরক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান দিয়েছে মজার তথ্যটি।

গত আর্থিক বছরে যৌথভাবে মোট ১,৫৯৮ মিলিয়ন ডলার কামিয়েছে রিয়াল ও বার্সা। যারমধ্যে বার্সার ৮৪০.৮ মিলিয়ন, আর রিয়াল আয় করেছে ৭৫৭.৫ মিলিয়ন ইউরো। বিশ্বজুড়ে এদুই ক্লাবের ৬৫০ মিলিয়ন ভক্ত-দর্শকরাই মূলত আয়ের পেছনে বড় উৎস।

বিজ্ঞাপন

মৌসুমজুড়ে দুই স্প্যানিশ জায়ান্টের খেলোয়াড়রা যে পরিমাণ অর্থ এনে দেয়, সলোমন আইল্যান্ডের ৬ লাখ ৪২ হাজার নাগরিকও সে পরিমাণ আয় করতে পারেন না। ২৮,৪০০ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ওশেনিয়া অঞ্চলের দেশটির গতবছরের বার্ষিক আয় ছিল ১,৩৬০ মিলিয়ন ইউরো। যা বার্সা-রিয়ালের সম্মিলিত আয় থেকে ২৩৮ মিলিয়ন কম।

পলিনেশিয়া অঞ্চলের খুবই ছোট দেশগুলোর একটি টুবালু। মাত্র ২৬ বর্গকিলোমিটারের দেশটিতে ১১ হাজারের একটু বেশি জনসংখ্যার বাস। এত জনগণ মিলে সারাবছর যা আয় করেন, এক লিওনেল মেসির আয়ই তারচেয়ে বেশি। কেবল ২০১৯ সালে বার্সা অধিনায়কের আয় ছিল ১২৭ মিলিয়ন ইউরো। যা নাউরু নামক দেশটির চেয়ে খানিকটা কম, আর টুবালুর বার্ষিক আয়ের তিনগুণেরও বেশি।

বিজ্ঞাপন