চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিদায় বলে দিলেন হাশিম আমলা

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর

সব ফরম্যাটের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন সাউথ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান হাশিম আমলা। তবে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলে যাওয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন সদ্য সাবেক হয়ে যাওয়া এ প্রোটিয়া তারকা।

‘প্রথমত সমস্ত প্রশংসা আর ধন্যবাদ পরম করুণাময়ের প্রতি, যিনি আমাকে প্রোটিয়াদের হয়ে খেলার সুযোগ করে দিয়েছেন। এখানে খেলতে পারাটা আনন্দের এবং ভাগ্যের। দারুণ এ যাত্রায় আমি অনেককিছু শিখেছি। অসংখ্য বন্ধু হয়েছে। শিখিয়েছে ভ্রাতৃত্ববোধ।’ বিদায়বেলায় এমনটাই বলেছেন আমলা।

‘আমার বাবা-মায়ের কাছে তাদের ভালোবাসা, সমর্থন ও দোয়ার জন্য আমি কৃতজ্ঞ। তাদের ছায়ায় প্রোটিয়াদের হয়ে এতদূর আসতে পারা। আমার পরিবার, বন্ধু-বান্ধব এবং এজেন্ট, দল এবং সতীর্থ সকলের কাছেই আমি কৃতজ্ঞ। সবাইকে হৃদয় নিংড়ানো ধন্যবাদ। ভালোবাসা ও শান্তি।’

চলতি সপ্তাহে দুজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে হারাল সাউথ আফ্রিকান ক্রিকেট। আমলার আগে সপ্তাহের শুরুতে টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন দেশটির সবচেয়ে সফল পেসার ডেল স্টেইন।

বিজ্ঞাপন

২০০৪ সালে ভারতের বিপক্ষে ইডেন গার্ডেনসে টেস্ট অভিষেকের পর ১৫ বছরে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটে ১৮ হাজারেরও বেশি রান করেছেন আমলা। সাদা পোশাকে ১২৪ ম্যাচে ২৮ সেঞ্চুরিতে ৪৬.২৪ গড়ে করেছেন ৯,২৮২ রান। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২০১২ সালে তার ৩১১ রানের ইনিংসটি এখন পর্যন্ত সাউথ আফ্রিকানদের সর্বোচ্চ টেস্ট ইনিংস।

২০০৮ সালে অভিষেকের পর ওয়ানডেতেও ছিলেন সমান উজ্জ্বল। ১৮১ ওয়ানডেতে করেছেন ৮,১১৩ রান। ৪৯.৪৬ গড়ে ২৭ সেঞ্চুরিতে টেস্টের চেয়ে বরং ওয়ানডেতেই ছিলেন বেশি সপ্রতিভ।

তবে শেষ ১২ মাসে ঠিক এই উজ্জ্বলতা খুঁজে পাওয়া যায়নি ৩৬ বয়সী ব্যাটসম্যানের মাঝে। বিশ্বকাপে ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে বাবার অসুস্থতাও ক্রিকেটে মনোযোগ ধরে রাখতে না পারার পেছনে ছিল অন্যতম কারণ।

শেষদিকের পারফরম্যান্স যেমনটাই বলুক না কেনো, আমলার অভিজ্ঞতা আর প্রজ্ঞার অভাবটা বেশরকম বোধ করবে সাউথ আফ্রিকান ক্রিকেট। বিবৃতিতে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী থাবাং মোরে লিখেছেন, ‘তার নম্রতা সবসময়ই তাকে উঁচুতে রাখবে। একজন মানুষ কীভাবে আদর্শ জীবন-যাপন করে সেজন্য সে ছাড়া আর কেউ আমার চোখে পড়ে না। আসুন আমরা সবাই মিলে তার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি।’

শেয়ার করুন: