চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বার্সায় আরও দুই বছর থাকবেন মেসি?

বার্সেলোনায় আরও দুই বছর থাকতে পারেন লিওনেল মেসি, এমন ইঙ্গিত ক্লাবটির কিংবদন্তি রিভালদোর। এ দুবছরে বার্সার ভবিষ্যৎ ভাবা হচ্ছে যাকে, সেই আনসু ফাতিকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের সাহায্য চাইছেন ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক মিডফিল্ডার।

হতাশাজনক ২০১৯-২০ মৌসুম শেষের পর বার্সায় আর থাকতে চাননি মেসি। ছাড়তে চেয়েছেন স্পেন। শেষ পর্যন্ত আরেকটা মৌসুম থেকে যাওয়ার ব্যাপারে অনেকটা ইচ্ছার বিরুদ্ধে রাজি হয়েছেন ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মহাতারকা। ২০২১ সালে বার্সার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ার পর ন্যু ক্যাম্পে তাকে আর দেখা যাবে কিনা সেটা এখন বড় প্রশ্ন।

বিজ্ঞাপন

২০২১ সালের পর মেসিকে আরও দুবছর হয়তো ন্যু ক্যাম্পে দেখা যেতে পারে। আগামী বছরের শুরু থেকে আর্জেন্টাইন অধিনায়কের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন ক্লাবের পরিচালকরা। রিভালদোর বিশ্বাস সেই আলোচনায় কাজ হতে পারে। হয়তো চ্যালেঞ্জ নিয়ে আরও কয়েকটা মৌসুম প্রিয় ন্যু ক্যাম্প মাতাতে দেখা যেতে পারে এলএম টেনকে। সঙ্গে লুইস সুয়ারেজ ও আর্তুরো ভিদালের বিদায়ের বিষয়টিও মাথায় রাখতে অনুরোধ করেছেন এ কিংবদন্তি।

বিজ্ঞাপন

‘সুয়ারেজ ও ভিদালের বিদায়ের পর গণমাধ্যম ভাবছে আগামী মৌসুমেই মেসি ক্লাব ছাড়বে। আমি মনে করি তার থেকে যাওয়ারও অনেক কারণ আছে।’ বেটফেয়ারকে এমন বলেছেন রিভালদো।

বিজ্ঞাপন

‘সে ড্রেসিংরুমে আরও নতুন বন্ধু তৈরি করতে পারে। আর আমাদের ভুলে যাওয়া চলবে না যে ২০২১ সালে নতুন নির্বাচন আছে, যা পরিস্থিতি পাল্টে দিতে পারে।’

‘আমরা জানি না মেসি ও বর্তমান প্রেসিডেন্টের সম্পর্কটা কেমন। সুতরাং অপেক্ষা করে দেখা যাক সে মন পরিবর্তন করে আরও দুইটা মৌসুম থেকে যায় কিনা।’

বার্সার ১৭ বছর বয়সী তরুণ তারকা আনসু ফাতিকে প্রতিষ্ঠিত করতেও মেসিকে প্রয়োজন বলে মনে করেন রিভালদো, ‘আনসু ফাতি ক্লাবের সঙ্গে নতুন চুক্তি করেছে, তার রিলিজ ক্লজ এখন ৪০০ মিলিয়ন ইউরো। তরুণ স্প্যানিয়ার্ড এখন ক্লাবের ভবিষ্যৎ।’

‘বার্সার এখন এমন খেলোয়াড়দের দরকার যারা মাঠে দায়িত্ব নিতে জানে, আর খেলার মোড় ঘুড়িয়ে দিতে পারে। ফাতির নামের পেছনে বড় ক্লজ থাকার মানে হল বার্সার তাকে নিয়ে বড় স্বপ্ন আছে যে, সে একদিন বড় খেলোয়াড় হবে। একদিন হয়তো তাকে মেসি কিংবা বড় খেলোয়াড়দের সঙ্গে তুলনা করা হবে।’