চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশে আইএস নাশকতার দাবিতে সাইট ইন্টেলিজেন্সের জরুরি বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশে দুই বিদেশী নাগরিক হত্যা এবং তাজিয়া মিছিলের প্রস্তুতিতে হামলার ঘটনায় আইএস জড়িত বলে আবারও দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক উগ্রপন্থি বার্তা-প্রচারণা পর্যবেক্ষক প্রতিষ্ঠান সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ। মঙ্গলবার গ্রুপটির ওয়েবসাইটে একটি জরুরি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক সময়ের নাশকতায় আইএস জঙ্গিগোষ্ঠী জড়িত বলে দাবি করেছে।

বুধবার সাইটের টুইটার পেজেও বিজ্ঞপ্তিটি টুইট করা হয়।

‘বাংলাদেশ সরকার আইএস’র হামলার দাবির সত্যতাকে মেনে নিতে অনিচ্ছুক’ শিরোনামের ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ইতালির নাগরিক টাভেলা সিজার, পরে ৩ অক্টোবর রংপুরে জাপানি নাগরিক হোশি কুনিও এবং সর্বশেষ শিয়া সম্প্রদায়ের তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলার ঘটনায় ইসলামিক স্টেট বা আইএস দায় দায়িত্ব স্বীকার করে নিয়েছিলো। কিন্তু বাংলাদেশ সরকার এসব হামলার ঘটনায় আইএস সম্পৃক্ততার বিষয়টি তীব্রভাবে নাকচ করে দেয়।

বিজ্ঞাপন

এসব হামলায় আইএস’র সম্পৃক্ততার দাবি নাকচের মাধ্যমে তাদের আড়ালে রাখার বিভ্রান্তিকর প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেছে সাইটটি। একই সঙ্গে সরকার সাইট ইন্টিলিজেন্স এবং এর পরিচালক রিটা ক্যাটজ-এর বিরুদ্ধে নেতিবাচক প্রচারের মাধ্যমে মানহানির চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করা হয় সেখানে।

ওয়েবসাইটটি বলছে, তাদের দাবি খাঁটি ও নির্ভুল এবং যাচাই-বাছাই সংক্রান্ত নিজস্ব প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই এর বিশ্বাসযোগ্যতা সম্পর্কে তারা নিশ্চিত হয়েছে।

এই ওয়েবসাইটেই বিদেশী নাগরিক হত্যার ঘটনায় আইএস’র হামলার বিষয়ে প্রথম তথ্য প্রচার করা হয়েছিলো। শুরু থেকেই এরা টাভেলা হত্যার ঘটনায় আইএস জড়িত থাকার দাবি করে এলেও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ওই ঘটনায় বিরোধী দল বিএনপির একজন স্থানীয় নেতা অভিযুক্ত বলে জানানো হয়।

শেয়ার করুন: