চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফরিদপুরে টার্কি, তিতির ও কোয়েল পাখির অসংখ্য খামার

ফরিদপুরে বাণিজ্যিকভাবে টার্কি, তিতির ও কোয়েল পাখির অসংখ্য খামার গড়ে উঠেছে। পাখির মাংস ও ডিমের চাহিদা থাকায় দিন দিন বাড়ছে খামারের সংখ্যা। প্রতিদিন এসব খামারে উৎপাদিত ডিম যাচ্ছে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে।

২০১৩ সালে চুন্নু মিয়া নামে এক ব্যক্তি সর্বপ্রথম এ অঞ্চলে টার্কি মুরগির খামার করেন। ফরিদপুর সদর উপজেলার খলিলপুর এলাকায় তার রয়েছে সবচেয়ে বড় টার্কির খামার। তাকে দেখে এলাকার অনেকেই ছোট বড় টার্কির খামার গড়ে তুলেছেন। খামারিরা টার্কির সাথে আরও গড়ে তুলেছেন তিতির ও কোয়েল পাখির খামার।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ফরিদপুর প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর জানায়, তিতির ও টার্কি মুরগির মাংস ও ডিমের দাম অনেক। এসব পাখির মাংস ও ডিমের স্বাদ ও পুষ্টিগুণ বেশি থাকায় সারাদেশে এর চাহিদাও রয়েছে ব্যাপক।

ফরিদপুর জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. হাবিবুল হক জানান, ফরিদপুরে বিভিন্ন এলাকায় প্রায় ২০ হাজারে মতো টার্কির খামার গড়ে উঠেছে।

বিস্তারিত ভিডিও রিপোর্টে:

Bellow Post-Green View