চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রখ্যাত সাহিত্যিক দেবেশ রায়ের মৃত্যু

মৃত্যুবরণ করেছেন বাংলা সাহিত্য জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র দেবেশ রায়।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে কলকাতার এক বেসরকারি নার্সিংহোমে এই কথাসাহিত্যিকের মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

বিজ্ঞাপন

তিনি দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন সমস্যায় ভুগছিলেন।

বিজ্ঞাপন

১৯৩৬ সালের ১৭ ডিসেম্বর বাংলাদেশের পাবনা জেলার বাগমারা গ্রামে তার জন্ম। শৈশবেই জন্মভূমি ছেড়ে ভারতের বাসিন্দা হন তিনি। সেখানেই কেটেছে কৈশোর ও যৌবন। কলকাতা শহরে ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনের সঙ্গেও তিনি যুক্ত ছিলেন।

‘আহ্নিক গতি ও মাঝখানের দরজা’, ‘দুপুর’, ‘পা’, ‘কলকাতা ও গোপাল’, ‘পশ্চাৎভূমি’, ‘ইচ্ছামতী’, ‘নিরস্ত্রীকরণ কেন’, ও ‘উদ্বাস্তু’- এই আটটি গল্প নিয়ে দেবেশ রায়ের প্রথম গল্পের বই প্রকাশিত হয়। ১৯৭৯ সাল থেকে তিনি এক দশক পরিচয় পত্রিকা সম্পাদনা করেন।

দেবেশ রায়ের প্রথম প্রকাশিত উপন্যাস যযাতি। তার অন্যান্য বইয়ের মধ্যে রয়েছে মানুষ খুন করে কেন (১৯৭৬), মফস্বলী বৃত্তান্ত (১৯৮০), সময় অসময়ের বৃত্তান্ত (১৯৯৩), তিস্তা পাড়ের বৃত্তান্ত (১৯৮৮), লগন গান্ধার (১৯৯৫) ইত্যাদি। এর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সমাদৃত উপন্যাস তিস্তা পাড়ের বৃত্তান্তের জন্য ১৯৯০ সালে তিনি ভারতে সাহিত্য অ্যাকাডেমি পুরস্কার পান।