চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্যারিস হামলার মূল পরিকল্পনাকারী বেলজিয়ামে গ্রেফতার

ঘটনার চারমাস পর গ্রেফতার হলেন প্যারিস হামলার মূল অভিযুক্ত সালেহ আবদেসালাম। তাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেফতারর করা হয়েছে। ওই হামলার পর থেকে গত চারমাস ধরে তিনি পালিয়ে ছিলেন।

বেলজিয়ামের সন্ত্রাস বিরোধী পুলিশ তাকে রাজধানী ব্রাসেলসের মোলেনবেক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলি হলে তিনি পায়ে গুলিবিদ্ধ হন।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ এ স্থান থেকে মুনির আহমেদ আল হাদজ নামে আরো একজনকে গ্রেফতার করে। তিনিও পুলিশের তালিকাভূক্ত আসামী ছিলেন।

সেখানে একাধিক বিস্ফোরণ আওয়াজ পাওয়া গেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। গত নভেম্বরে প্যারিসের ওই হামলায় ১৩০জন নিহত হয়। আহত হয় অনেকে। এরপর থেকেই সালেহ আবদেসালামকে খুঁজছিলো ইউরোপের পুলিশ।

এই খবর জানার পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন-তুরস্ক সম্মেলন ছেড়ে দেশে ফিরেন বেলজিয়ামের প্রধানমন্ত্রী চার্লস মাইকেল। তিনি বলেছেন, গণতন্ত্র রক্ষায় সালেহের গ্রেফতার খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বিজ্ঞাপন

২৬ বছর বয়সী আবদেসালাম ফরাসি নাগরিক হলেও দীর্ঘদিন ধরে বেলজিয়ামে বসবাস করছেন। সেখান থেকে গিয়েই তিনি প্যারিসে হামলা চালিয়েছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

হামলার পর সে আবার ব্রাসেলসের একটি ফ্লাটে লুকিয়ে ছিল বলে পুলিশের ধারণা।

এর আগে আবদেসালামকে গ্রেফতার করতে ব্রাসেলস এবং প্যারিসে কয়েক দফা অভিযান চালানো হলেও তাকে আটক করা যায়নি।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলাদ বলেছেন, তার দেশ আশা করে, যত দ্রুত সম্ভব আবদেসালামকে ফ্রান্সের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এই গ্রেফতারকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করলেও চূড়ান্ত নয় বলেও  মনে করেন তিনি।

কারণ হিসাবে ওঁলাদ বলেছেন, প্যারিস হামলার যারা পরিকল্পনা করেছে, সহায়তা করেছে, অর্থ দিয়েছে বা যারা প্রশ্রয় দিয়েছে, তাদের সবাইকে গ্রেফতার না করার পর্যন্ত লড়াই চলবে। হয়তো আরো অনেক গ্রেফতার হবে। কারণ এই চক্রটি অনেক বেশি বিস্তৃত।