চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে সরকারি অনুদান বাড়ছে ১৫ লাখ

প্রতি বছরের মতো চলতি অর্থ বছরেও চলচ্চিত্রে দেয়া হবে সরকারি অনুদান। এবছর কারা পাচ্ছেন অনুদান, তার আগেই চলচ্চিত্রের মানুষদের জন্য আনন্দ সংবাদ জানালো তথ্য মন্ত্রণালয়।

তথ্য মন্ত্রণালয় সোমবার (১৫ জুন) এক নীতিমালা প্রকাশ করে জানিয়েছে, ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে পূর্ণদৈর্ঘ্য ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে বাড়ছে অনুদানের অর্থ, সেই সঙ্গে বাড়ছে চলচ্চিত্রের সংখ্যা ও!

বিজ্ঞাপন

এই অর্থ বছর থেকে প্রতিটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রর জন্য দেয়া হবে ৭৫ লাখ টাকা, এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রর জন্য দেয়া হবে ২০ লাখ টাকা। যা গত অর্থ বছরেও প্রতিটি পূর্ণদৈর্ঘ্য ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের জন্য বরাদ্দ ছিলো যথাক্রমে ৬০ লাখ ও ১০ লাখ টাকা!

বিজ্ঞাপন

এবছর পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণে সরকারি অনুদান প্রদান নীতিমালায় (সংশোধিত) জানানো হয়েছে, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক একটি চলচ্চিত্রসহ ১০টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অনুদান দেওয়া হবে। একইভাবে একটি শিশুতোষ চলচ্চিত্রসহ ১০টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের প্রত্যেকটিতে সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকা করে অনুদান দেওয়া হবে।

অনুদান পাওয়া নির্মাতা ও প্রযোজকদের জন্য নীতিমালায় কিছু শর্তের কথাও বলা হয়েছে। জানানো হয়, অনুদানপ্রাপ্ত পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নূন্যতম ১০টি সিনেমা হলে মুক্তি দিতে হবে।

নতুন নীতিমালার বিষয়টি সামনে রেখে শিগগির ১১ সদস্যের অনুদান কমিটি ও ৭ সদস্যের অনুদান বাছাই কমিটি গঠন করা হবে বলে জানানো হয় ওই বিজ্ঞপ্তিতে।

চলচ্চিত্রে অনুদানের পরিমাণ বাড়ছে, গেল বছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে এমন ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।