চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে তারার মেলা

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো ‘ফ্রেন্ডসভিউ প্রেজেন্টস টেলিপ্রেস স্টার অ্যাওয়ার্ড’

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো ‘ফ্রেন্ডসভিউ প্রেজেন্টস টেলিপ্রেস স্টার অ্যাওয়ার্ডস’। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান উপলক্ষে হোটেল রিজেন্সিতে বসেছিলো তারার হাট।

অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র ও নাটকের মনোনীত অভিনয়শিল্পী ছাড়াও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন টেলিপ্রেসের সিইও, সাংবাদিক এবং মিডিয়া ব্যক্তিত্ব রাজু আলীম।

বিজ্ঞাপন

দেশের গান দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে ‘বিশ্ব সুন্দরী’ ছবির জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কার নেন চয়নিকা চৌধুরী। সেরা অভিনেত্রী পরীমনি, মীম, অভিনেতা সাইমন সাদিক, নীরব পুরস্কার গ্রহণ করেন।

টিভি নাটকে সেরার পুরস্কার অর্জন করেন আফরান নিশো এবং মেহজাবীন চৌধুরী। খলনায়ক হিসেবে সেরার পুরস্কার দেয়া হয় অমিত হাসানকে। ‘করোনাকাল’ ডকুফিল্ম এর জন্য সেরার পুরস্কার জিতে নেন প্রযোজক পরিচালক ও ‘দ্য ফ্লাগ গার্ল’ খ্যাত প্রিয়তা ইফতেখার, নবাগতা হিসেবে পুরস্কার দেয়া হয় চিত্রনায়িকা প্রিয়মনিকে।

বঙ্গবন্ধু-মুক্তিযুদ্ধ-নারী-অধিকার বিষয়ক গবেষণা এবং সাংবাদিকতায় সেরার পুরস্কার জিতে নেন সাজেদা হক। সেরা ইউটিউবার এর পুরস্কার  দেয়া হয় হালের জনপ্রিয় তৌহিদ আফ্রিদিকে।

উপস্থাপনায় সেরার পুরস্কার পেয়েছেন চ্যানেল আইয়ের উপস্থাপক সানজিদা পারভীন এবং মৌসুমী মৌ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, কম পারিশ্রমিক স্বত্ত্বেও মানুষের মনকে বিনোদিত করেন শিল্পীরা, তাদের সম্মানিত করা আমাদের দায়িত্ব। এমন আয়োজন নিয়মিত হওয়া উচিৎ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে টেলিপ্রেসের সিইও ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব রাজু আলীম বলেন, শিল্পীদের প্রতি আমাদের ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা জানাতেই এমন আয়োজন।

স্বীকৃতি এবং পুরস্কার শিল্পীদের অনুপ্রাণিত করে জানিয়ে তিনি বলেন, শিল্পীদের ভালো কাজের উৎসাহ দেয়া জরুরী। তিনি বলেন, স্বল্প সময়ের মধ্যে শিল্পীদের এ উপস্থিতি অনুষ্ঠানকে প্রাঞ্জল করেছে।

অনুষ্ঠানে এশিয়ান টিভির সিইওসহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। ফ্যাশন শো, মডার্ন ড্যান্স, দেশের গান এবং আধুনিক গানসহ পুরো আয়োজন জুড়েই ছিলো নানান চমক।