চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নৌকাডুবিতে নিহত ১৮: দুই কোটি ৭০ লাখ টাকা দিতে রায়

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের গুপ্তছড়া ঘাটের কাছে নৌকাডুবিতে নিহত ১৮ জনের পরিবারকে ১৫ লাখ টাকা করে মোট ২ কোটি ৭০ লাখ টাকা দিতে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি রাজিক-আল-জলিলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ এই রায় দেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. আবদুল হালিম ও ইশরাত হাসান। বিআইডব্লিউটিসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী সাইফুর রশীদ। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ওয়ায়েস আল হারুনী।

ঘটনার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২ এপ্রিলে চট্টগ্রামের কুমিরা ঘাট থেকে প্রায় ৩৫০ জন যাত্রী নিয়ে একটি জাহাজ সন্দ্বীপের উদ্দেশে যাত্রা করে গুপ্তছড়া ঘাটের কাছে পৌঁছায়। কিন্তু জাহাজটি সরাসরি ঘাটে ভিড়তে না পারায় যাত্রীরা নৌকা যাত্রীদের নিয়ে ঘাটে পৌঁছাতে শুরু করে। সেসময় একটি নৌকা বাতাসে উল্টে যায়। পরে কোস্টগার্ড ও স্থানীয় ব্যক্তিদের সহযোগিতায় ২২ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। আর কয়েকদিনের উদ্ধার অভিযানে ১৮ জনের মরদেহ উদ্ধার হয়। ওই ঘটনার পর ক্ষতিগ্রস্তদের পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণের নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম হাইকোর্টে রিট করেন। সেই রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেন। ওই রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে আজ রায় দেন হাইকোর্ট। রায়ে ৬০ দিনের মধ্যে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদকে সমানভাবে ক্ষতিপূরণের অর্থ পরিশোধ করতে বলা হয়েছে।

নৌকাডুবিতে নিহতরা হলেন: বড়দা জলদাস, সালাউদ্দীন, সচীন্দ্র জলদাস, আব্দুল হক, হাফেজ আমিন রসুল, মো. সামশুল আলম শাহীন, মো. কামরুজ্জামান, মাঈন উদ্দিন, হাফিজ উল্যাহ, নিজাম উদ্দিন, তানজিম মো. জুবায়েদ, মাস্টার ওসমান গণী, মাস্টার ইউছুপ, মাকসুদুর রহমান, মাস্টার মো. আনোয়ার হোসেন শিপন, মো. তাহসিন, নিহা ও হারুন অর রশীদ।