চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নেইমার দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ

সাত ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার ঝুঁকি থাকলেও অল্পতেই পার পেয়ে গেলেন নেইমার। গত রোববার মার্শেইয়ের ম্যাচে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার আলভারো গঞ্জালেসের মাথায় চড় মারার অপরাধে মাঠেই লাল কার্ড দেখেছিলেন, সব মিলিয়ে দুই ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

পিএসজি-মার্শেই ম্যাচে মোট পাঁচজন খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখেছিলেন। ফ্রেঞ্চ ফেডারেশন গভর্নিং বডি (এলএফপি) শাস্তি দিয়েছে সবাইকেই।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচে আগুন জ্বালিয়েছিলেন দুই আর্জেন্টাইন লিয়েন্দ্রো পারাদেস ও দারিও বেনেদিত্তো। দুজনেই ম্যাচে দুই হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। পিএসজির হয়ে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন নেইমার ও লেভিন কুরজাওয়া, আর মার্শেইয়ের জর্ডান আমাভি।

বিজ্ঞাপন

দুম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন পিএসজির পারাদেস, এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন মার্শেইতে তার আর্জেন্টাইন সতীর্থ বেনেদিত্তো। সবচেয়ে বড় নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন কুরজাওয়া, তাকে ছয় ম্যাচ নিষিদ্ধ করেছে এলএফপি। অভিযোগ, আমাভিকে লাথি মেরেছিলেন তিনি। তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন আমাভি নিজেও।

মার্শেইয়ের ডিফেন্ডার আলভারো গঞ্জালেসের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ এনেছিলেন নেইমার। ব্রাজিলিয়ান তারকার দাবি, আলভারো তাকে ‘বানর’ বলেছেন। একই খেলোয়াড়কে থুথু ছিটিয়েছিলেন পিএসজির আরেক খেলোয়াড় অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আগামী বুধবার তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে এলএফপি।

লাল কার্ড দেখায় এমনিতেই এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হতেন নেইমার, বুধবার মেঞ্জের বিপক্ষে খেলতে পারেননি সেজন্য। আরেক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ২৭ সেপ্টেম্বর মাঠে ফিরবেন তিনি।