চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘নিপীড়িত’ শ্রমিকদের জন্য কাতার বিশ্বকাপের সমপরিমাণ অর্থ চায় অ্যামনেস্টি

আগামী ২১ নভেম্বর কাতারে বসতে যাচ্ছে ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর বিশ্বকাপ ফুটবল। এ আয়োজনকে পূর্ণতা দিতে কোনো কমতি রাখেনি দেশটি। তবে অভিবাসী শ্রমিক নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে।

মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল নিপীড়িত শ্রমিকদের ৪৪০ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে বলেছে ফিফাকে। এই অর্থ বিশ্বকাপে দলগুলোর মোট পুরস্কার ও ম্যাচ ফি’র সমান।

Reneta June

অভিযোগ উঠেছে, অবকাঠামো নির্মাণে সেখানে কয়েক হাজার অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শ্রম সুরক্ষায় বাড়তি নজর দেয়নি, উল্টো কম পারিশ্রমিকে কাজ করতে বাধ্য করেছে শ্রমিকদের। এমন সব গুরুতর অভিযোগও বিবৃতিতে তুলে ধরেছে অ্যামনেস্টি।

বিজ্ঞাপন

সংস্থাটি বলছে, ২০২২ বিশ্বকাপের প্রস্তুতির সময় কাতারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিকার কয়েক হাজার অভিবাসী শ্রমিকের প্রতিকার প্রদানের জন্য ফিফার কমপক্ষে ৪৪০ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ করা উচিত। প্রতিকার কর্মসূচি প্রতিষ্ঠা করতে আমরা ইনফান্তিনোকে কাতারের সাথে কাজ করার অহ্বান জানিয়েছি। ২০১০ সাল থেকে সেখানে শ্রম সুরক্ষা না রেখেই কাজ করানো হচ্ছে। কর্মী ঝুঁকির বিষয়টি তারা সচেতনভাবে এড়িয়ে গেছে।’

অ্যামনেস্টির দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি বিবেচনায় এনেছে ফিফা। যদিও এরআগে ফিফা সভাপতি দাবি করে, সেখানে মাত্র দুই থেকে তিন জনের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। বেশিরভাগ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে অন্য কাজ করতে গিয়ে বলে জানিয়েছেন আয়োজকদের এক মুখপাত্র।

কাতারের মোট জনসংখ্যা ২.৪ মিলিয়নের মধ্যে দুই মিলিয়নেরও বেশি অভিবাসী। যাদের একটা বড় অংশ দক্ষিণ এশিয়া দেশগুলোর নাগরিক। যাদের মধ্যে ৪৮ হাজার শ্রমিককে নির্মাণ শেষে ইতিমধ্যেই ছাঁটাই করা হয়েছে।